পুজোর পোশাক ট্রেন্ড জানাচ্ছেন ডিজাইনার অভিষেক দত্ত

অমৃত হালদার
২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ১৫:৫৭:২৫ | শেষ আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ১১:০৭:৩৭
লালপেড়ে ঘিয়ে শাড়ি কিংবা একটু ঝকমকে বাহারি সালোয়ার এ সব তো আকছারই পরে আসছেন সে কবে থেকেই। পুজো বলতেই এই পোশাকগুলোই বাঙালিদের চোখে ভেসে ওঠে যেন। এ বার স্বাদ একটু বদলে নিন না। দুর্গাপুজোর ফেস্টিভ মুডটা যাতে পুরোপুরি বজায় থাকে এমন পোশাক বাছুন। তবে যেন সেই এথনিকের মনোটনিটা না থাকে। এ বারের ট্রেন্ডটা হল পোশাকের ধারাটাকে একটু ভেঙে নেওয়া। অর্থাৎ একটু ফিউশনের ধার ঘেঁষে ডুব দেওয়া।
অভিষেক দত্ত।

এথনিক ওয়্যারের সঙ্গে ওয়েস্টার্ন পোশাকের অদ্ভুত মিশেলে সেজে পুজোমণ্ডপ ঝলমলে করে তুলুন। আপনার সাজ আর ব্যক্তিত্ব মিলেমিশে এক অদ্ভুত আবেশ তৈরি করুক। পোশাকের আতিশয্যে হারিয়ে না গিয়ে আপনার পোশাক হয়ে উঠুক আপনার চেহারার সোনার কাঠি।

Designer Abhishek Dutta Shares Fashion Tips For Durga Puja

মহিলা ফ্যাশনে নজর

এ বার ষষ্ঠী-সপ্তমীতে মহিলারা ইন্দো-ওয়েস্টার্ন সাজে সেজে উঠুন।

কী কী পরবেন—

• লং কুর্তা জ্যাকেট। সঙ্গে অনেকটা ঘেরওয়ালা পালাজো। যা পরলে আপনাকে সবার চাইতে এক্কেবারে আলাদা দেখাবে।

• পরতে পারেন ড্রিপিং জ্যাকেট।

• চেক কুর্তাও অন্য মাত্রা আনবে।

• শর্ট টপ, সঙ্গে পালাজো। এই ধরনের পোশাকও ফাটাফাটি ফিল দেবে।

• বোলেরো জ্যাকেটও দারুণ লাগবে।

Designer Abhishek Dutta Shares Fashion Tips For Durga Puja

শাড়িতে সুন্দরী

বছরের অন্য দিনগুলো তো আর শাড়ি পরার বিশেষ সুযোগ হয় না। তবে পুজোর কয়েকটা দিন এক্সক্লুসিভলি তুলে রাখেন শাড়ি পরার জন্যই। এমন ভাবনা থাকলে আপনি অবশ্যই শাড়িতে সেজে উঠতে পারেন একটা দিন।

• লিনেন শাড়িতে পরীটি সেজে মণ্ডপে গিয়ে পুষ্পাঞ্জলি দেওয়া কমপ্লিট। এর পর কিন্তু একটা কুল সেলফি মাস্ট।

• শাড়ি একটু সিম্পল ধরনেরই হোক। তবে ব্লাউজের যেন একটু কেতা থাকে। শর্ট জ্যাকেট টাইপ ব্লাউজ বা একটু লং জ্যাকেট ব্লাউজও পরতে পারেন।

Designer Abhishek Dutta Shares Fashion Tips For Durga Puja

ছেলেদের কুল ফ্যাশন ফান্ডা

প্রতি বারের মতো এ বারও কটন জ্যাকেট ফ্যাশনে ইন। এ বার পদ্ম, পাখি আঁকা  জ্যাকেট ট্রেন্ড করছে। উপরে ড্রিপার কুর্তা, সঙ্গে ধোতি প্যান্ট এক্কেবারে পুজো ফ্লেভার এনে দেবে। হ্যাঁ, জামদানি ধুতি পরতে পারেন। অবশ্যই সেটা যেন সেলাই করা ধুতি হয়। তাতে ধুতি পরে তা সামলানোর ঝক্কি এক ধাক্কায় কমে যাবে।

সর্বশেষ সংবাদ

দীপাবলি মানে অন্ধকার থেকে আলোয় ফেরা। ফুল, প্রদীপ, রঙ্গোলির রঙে মনকে রাঙিয়ে তোলা।
হেডফোন বা হেডসেট এমন বাছুন যা কি না আপনার কান আর শরীরকে কষ্ট না দেয়।
ছবি তোলার প্রথম ক্যামেরা কোডাক যে দিন বাজারে এল বিক্রির জন্য, সেই ১৮৮৮ সালে। পাল্টে গেল ছবি তোলার সংজ্ঞাই।
আগে এই প্রথা মূলত অবাঙালিদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও এখন লক্ষ্মীলাভের আশায় বাঙালিরাও সমান ভাবে অংশগ্রহণ করেন।
ধন কথার অর্থ সম্পদ, তেরাসের অর্থ ত্রয়োদশী তিথি।
এই একবিংশ শতাব্দীতে ১৫৯০-এর একটুকরো আওধকে কলকাতায় হাজির করেছেন ভোজনবিলাসী শিলাদিত্য চৌধুরী।
আমেরিকার সেন্ট লুইসের প্রায় ৪০০ বাঙালিকে নিয়ে আমরা গত সপ্তাহান্তে মেতে উঠেছিলাম দূর্গা পুজো নিয়ে।
শারদীয়ার রেশ কাটতে না কাটতেই আগমনীর বার্তা নিয়ে হাজির দীপান্বিতা।