সপ্তমীর ভোগের আলুর দম

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ০৯:৪৬:৪৬ | শেষ আপডেট: ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ০৫:৪০:৪২
সপ্তমীর ভোগে যদি খিচুড়ি থাকে তা হলে সঙ্গে তো আলুর দম লাগবেই। আর ভোগের আলুর দম মানেই একেবারে অন্য রকম স্বাদ। শিখে নিন ভোগের আলুর দম।
ছবি ও রেসিপি সৌজন্যে: পৌলমী মল্লিক কুণ্ডু।

কী কী লাগবে

ছোট আলু: ৭০০ গ্রাম (৭-৯টা)

টোম্যাটো: ২টো (কুচনো)

কাঁচা লঙ্কা: ৩-৪টে

ধনেপাতা কুচি: এক মুঠো

সিদ্ধ কড়াইশুঁটি: ১/২ কাপ

আদা: ১ ইঞ্চি স্টিক (মিহি করে কুচনো)

ফেটানো দই: আধ কাপ

কাজু: ৮-৯টা

চারমগজ: ২ চা চামচ

চিনি: ১ চা চামচ

গোটা জিরে: ১ চা চামচ

মৌরি: ১/৪চা চামচ

তেজপাতা: ১টা বড়

শুকনো লঙ্কা: ২টো

হলুদ গুঁড়ো: ১ চা চামচ

লঙ্কা গুঁড়ো: ২ চা চামচ

জিরে গুঁড়ো: ১ চা চামচ

সর্ষের তেল: ১/৪ কাপ

নুন: স্বাদ মতো

রান্নার আগে

আলু সিদ্ধ করে নিন। বেশি সিদ্ধ করবেন না যাতে গলে যায়। ঠান্ডা করে খোসা ছাড়িয়ে রাখুন।

কাজু ও চারমগজ সামান্য জল দিয়ে এক সঙ্গে বেটে রাখুন।

কী ভাবে বানাবেন

Recipe For Saptami Special Alur Dum- Ananda Utsav 2017

কড়াইতে তেল গরম করে সিদ্ধ করে রাখা আলু ভেজে নিন।

Recipe For Saptami Special Alur Dum- Ananda Utsav 2017

তেল থেকে ছেঁকে তুলে সরিয়ে রাখুন।

Recipe For Saptami Special Alur Dum- Ananda Utsav 2017

এ বার ওই তেলেই গোটা জিরে, মৌরি, তেজপাতা ও শুকনো লঙ্কা ফোড়ন দিয়ে টোম্যাটো কুচি দিয়ে দিন।

Recipe For Saptami Special Alur Dum- Ananda Utsav 2017

টোম্যাটো নাড়তে নাড়তে গলে গেলে মশলা মেশানো দই দিয়ে দিন।

Recipe For Saptami Special Alur Dum- Ananda Utsav 2017

ঘন হয়ে এলে জল, কাজু ও চারমগজ বাটা দিন।

Recipe For Saptami Special Alur Dum- Ananda Utsav 2017

ভাল করে মিশিয়ে নিয়ে ভাজা আলু দিন।

Recipe For Saptami Special Alur Dum- Ananda Utsav 2017

সব শেষে কড়াইশুঁটি দিয়ে চাপা দিয়ে ফুটতে দিন যতক্ষণ না তেল ছেড়ে উপরে ভাসতে শুরু করছে।

Recipe For Saptami Special Alur Dum- Ananda Utsav 2017

উপরে ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে ভোগের খিচুড়ির সঙ্গে পরিবেশন করুন ভোগের আলুর দম। 

 

সর্বশেষ সংবাদ

দীপাবলি মানে অন্ধকার থেকে আলোয় ফেরা। ফুল, প্রদীপ, রঙ্গোলির রঙে মনকে রাঙিয়ে তোলা।
হেডফোন বা হেডসেট এমন বাছুন যা কি না আপনার কান আর শরীরকে কষ্ট না দেয়।
ছবি তোলার প্রথম ক্যামেরা কোডাক যে দিন বাজারে এল বিক্রির জন্য, সেই ১৮৮৮ সালে। পাল্টে গেল ছবি তোলার সংজ্ঞাই।
আগে এই প্রথা মূলত অবাঙালিদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও এখন লক্ষ্মীলাভের আশায় বাঙালিরাও সমান ভাবে অংশগ্রহণ করেন।
ধন কথার অর্থ সম্পদ, তেরাসের অর্থ ত্রয়োদশী তিথি।
এই একবিংশ শতাব্দীতে ১৫৯০-এর একটুকরো আওধকে কলকাতায় হাজির করেছেন ভোজনবিলাসী শিলাদিত্য চৌধুরী।
আমেরিকার সেন্ট লুইসের প্রায় ৪০০ বাঙালিকে নিয়ে আমরা গত সপ্তাহান্তে মেতে উঠেছিলাম দূর্গা পুজো নিয়ে।
শারদীয়ার রেশ কাটতে না কাটতেই আগমনীর বার্তা নিয়ে হাজির দীপান্বিতা।