ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে বৃষ্টি, জেনে নিন কী করবেন

প্রমা মিত্র
rain

সকাল বেলা নতুন জামা, নতুন জুতো পরে ম্যাচিং ব্যাগ নিয়ে বেরিয়েছেন। সারা দিন ঘুরে ঘুরে ঠাকুর দেখার প্ল্যান। হঠাত্ আকাশ ভেঙে ঝমঝম করে বৃষ্টি। একে তো ঠাকুর দেখা মাটি, তার ওপর নতুন জামা, জুতো ভিজে মন বেজায় খারাপ। তবে এক বেলা ভিজে গেছেন বলে গোটা পুজোটা তো আর জলে দেওয়া যায় না। তাই সবচেয়ে আগে সুস্থ থাকাটা জরুরি। তাই জেনে নিন ভিজে গেলে কী ভাবে যত্ন নেবেন নিজের, জামা, জুতো, ব্যাগের।

নিজের যত্ন

১। সবচেয়ে প্রথমে ভেজা জামা-জুতো ছেড়ে বাথরুমে গিয়ে হালকা গরম জলে স্নান করে নিন।

২। মাথা শুকনো করে মুছে নিন। ভুলেও ভেজা মাথায় ফ্যানের তলায় বসবেন না বা এসি ঘরে ঢুকবেন না। তাহলেই ঠান্ডা লেগে পুরো পুজোটাই মাটি।

৩। ভেজা জুতো পায়ে থাকা খুব খারাপ। তাই বাড়ি ফিরে পা কিন্তু ভাল করে গরম জলে ধুয়ে শুকনো করে মুছে নেবেন। ভেজা পায়ে থাকলে জ্বর আসতে পারে।

৪। অবশ্যই বাড়ি ফিরে ফ্রেশ হয়ে গরম কিছু খান। গরম চা, কফি বা স্যুপ।

৫। যদি দেখেন মাথা ধরছে, গলা ব্যথা করছে বা গা ম্যাজ ম্যাজ করছে তাহলে রিস্ক না নিয়ে প্যারাসিটামল জাতীয় কোনও ওষুধ খেয়ে বিশ্রাম নিন।

How To Tackle Rain During Durga Puja-Ananda Utsav

জামা

নিজে ভিজে শরীর খারাপ হলে পুজোর আনন্দ মাটি হবে, তেমনই শখ করে কেনা নতুন জামা ভিজে গেলেও মন খারাপের অন্ত থাকে না।

১। বৃষ্টি ভেজা জামা বাড়ি ফিরে কখনই ফেলে রাখবেন না। বৃষ্টির জল জামায় শুকোলে জামা খারাপ যেমন হয়ে যেতে পারে, তেমনই জামায় সোঁদা গন্ধও হতে পারে।

২। যত ভাল জামাই হোক কেচে নিন। ঠান্ডা জলে সুগন্ধি লিক্যুইড ডিটারজেন্ট দিয়ে জামা এক বার ডুবিয়ে তুলে নিন। এতে বৃষ্টির জল ধুয়ে যাবে। সুগন্ধি ডিটারজেন্টে বৃষ্টির সোঁদা গন্ধও দূর হবে।

৩। বালতির জলে এক ছিপি সাদা ভিনিগার বা এক চামচ বেকিং সোডা দিন। এতে বৃষ্টির জলের দাগ, কাদার দাগ উঠে যাবে। সোঁদা গন্ধও চলে যাবে।

৪। যদি বৃষ্টি চলতে থাকে তাহলে ঘরেই ফ্যানের হাওয়ায় মেলে রাখুন। যখনই বৃষ্টি থামবে বাইরে রোদে মেলে নিন। রোদে শুকোলে জামায় গন্ধ থাকবে না। তবে একদম চড়া রোদে মেলবেন না। এতে নতুন জামার রং নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ছায়ায় মেলুন। যাতে হালকা রোদও লাগে, হাওয়াও লাগে।

How To Tackle Rain During Durga Puja-Ananda Utsav

জুতো

পুজোয় নতুন জামা যেমন শখ করে কেনা হয়, তেমনই জুতোটাও হয় ততটাই প্রিয়। তাই নতুন জুতো ভিজে গেলে মন খারাপ হওয়া খুবই স্বাভাবিক।

১। বৃষ্টি ভেজা জুতো বাড়ি ফিরে এক বার পরিষ্কার জলে ধুয়ে নিন। বৃষ্টির জল জুতোয় শুকোলে দাগ হয়ে যেতে পারে।

২। টানা এক দিন জুতো রোদে শুকোতে দিন। যদি বৃষ্টি চলতে থাকে তাহলে অন্তত টানা দু’দিন হাওয়ায় শুকোতে হবে। পুরোপুরি না শুকোলে আবার পরবেন না।

৩। রোদে শুকোলে জুতোর সোঁদা গন্ধ চলে যাবে। যদি রোদে শুকনো সম্ভব না হয় বা শুকনোর পরও গন্ধ না যায় তাহলে জুতোর মধ্যে বেকিং সোডা দিয়ে এক-দু’দিন রেখে দিলেই গন্ধ চলে যাবে।

How To Tackle Rain During Durga Puja-Ananda Utsav

ব্যাগ

১। প্রথমেই ব্যাগ পুরো খালি করে ফেলুন। যদি ভিতরে থাকা জিনিসপত্র ভিজে গিয়ে থাকে তাহলে টিস্যু দিয়ে শুকনো করে মুছে নিন।

২। জলের মধ্যে বেকিং সোডা দিয়ে ব্যাগের বাইরেটা এক বার এই জলে ধুয়ে নিয়ে উল্টো করে শুকোতে দিন। এতে শুকিয়ে গেলে গন্ধ থাকবে না ব্যাগে। 

সর্বশেষ সংবাদ

ভিড়ের মধ্যে ঘুরে ঘুরে ঠাকুর দেখতে ভাল লাগে না। তার থেকে অনেক ভাল লাগে আড্ডা।
আমাদের ছোটবেলাটা ছিল সব পেয়েছিল দেশ। তখন যা চাইতাম তাই পেতাম।
ভাইকে এ বছর ভাইফোঁটাতে কী দেবেন ভেবেছেন? চলুন দেখি কিছু উপহারের নমুনা।
থাকছে অসংখ্য সিসি ক্যামেরার নজরদারি।
আজ কালীপুজো। দীপাবলির আলোয় সেজেছে চারিদিক।
শুধু কালীঘাট কিংবা দক্ষিণেশ্বর নয়। এ শহরে ছড়িয়ে রয়েছে ছোট বড় অসংখ্য কালীমন্দির।
বাজি পোড়ানোর সময় কিছু সাবধানতা নিতে বললেন চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা নন্দিনী রায় ও চেষ্ট ফিজিশিয়ান ডা সুস্মিতা রায়চৌধুরি।
মোমপ্রদীপ ও ফ্যান্সি প্রদীপের চাহিদা