ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে বৃষ্টি, জেনে নিন কী করবেন

প্রমা মিত্র
০৮ অক্টোবর, ২০১৬, ১৫:৪০:০৬ | শেষ আপডেট: ২৩ অগস্ট, ২০১৭, ১১:১৯:৫১
rain

সকাল বেলা নতুন জামা, নতুন জুতো পরে ম্যাচিং ব্যাগ নিয়ে বেরিয়েছেন। সারা দিন ঘুরে ঘুরে ঠাকুর দেখার প্ল্যান। হঠাত্ আকাশ ভেঙে ঝমঝম করে বৃষ্টি। একে তো ঠাকুর দেখা মাটি, তার ওপর নতুন জামা, জুতো ভিজে মন বেজায় খারাপ। তবে এক বেলা ভিজে গেছেন বলে গোটা পুজোটা তো আর জলে দেওয়া যায় না। তাই সবচেয়ে আগে সুস্থ থাকাটা জরুরি। তাই জেনে নিন ভিজে গেলে কী ভাবে যত্ন নেবেন নিজের, জামা, জুতো, ব্যাগের।

নিজের যত্ন

১। সবচেয়ে প্রথমে ভেজা জামা-জুতো ছেড়ে বাথরুমে গিয়ে হালকা গরম জলে স্নান করে নিন।

২। মাথা শুকনো করে মুছে নিন। ভুলেও ভেজা মাথায় ফ্যানের তলায় বসবেন না বা এসি ঘরে ঢুকবেন না। তাহলেই ঠান্ডা লেগে পুরো পুজোটাই মাটি।

৩। ভেজা জুতো পায়ে থাকা খুব খারাপ। তাই বাড়ি ফিরে পা কিন্তু ভাল করে গরম জলে ধুয়ে শুকনো করে মুছে নেবেন। ভেজা পায়ে থাকলে জ্বর আসতে পারে।

৪। অবশ্যই বাড়ি ফিরে ফ্রেশ হয়ে গরম কিছু খান। গরম চা, কফি বা স্যুপ।

৫। যদি দেখেন মাথা ধরছে, গলা ব্যথা করছে বা গা ম্যাজ ম্যাজ করছে তাহলে রিস্ক না নিয়ে প্যারাসিটামল জাতীয় কোনও ওষুধ খেয়ে বিশ্রাম নিন।

How To Tackle Rain During Durga Puja-Ananda Utsav

জামা

নিজে ভিজে শরীর খারাপ হলে পুজোর আনন্দ মাটি হবে, তেমনই শখ করে কেনা নতুন জামা ভিজে গেলেও মন খারাপের অন্ত থাকে না।

১। বৃষ্টি ভেজা জামা বাড়ি ফিরে কখনই ফেলে রাখবেন না। বৃষ্টির জল জামায় শুকোলে জামা খারাপ যেমন হয়ে যেতে পারে, তেমনই জামায় সোঁদা গন্ধও হতে পারে।

২। যত ভাল জামাই হোক কেচে নিন। ঠান্ডা জলে সুগন্ধি লিক্যুইড ডিটারজেন্ট দিয়ে জামা এক বার ডুবিয়ে তুলে নিন। এতে বৃষ্টির জল ধুয়ে যাবে। সুগন্ধি ডিটারজেন্টে বৃষ্টির সোঁদা গন্ধও দূর হবে।

৩। বালতির জলে এক ছিপি সাদা ভিনিগার বা এক চামচ বেকিং সোডা দিন। এতে বৃষ্টির জলের দাগ, কাদার দাগ উঠে যাবে। সোঁদা গন্ধও চলে যাবে।

৪। যদি বৃষ্টি চলতে থাকে তাহলে ঘরেই ফ্যানের হাওয়ায় মেলে রাখুন। যখনই বৃষ্টি থামবে বাইরে রোদে মেলে নিন। রোদে শুকোলে জামায় গন্ধ থাকবে না। তবে একদম চড়া রোদে মেলবেন না। এতে নতুন জামার রং নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ছায়ায় মেলুন। যাতে হালকা রোদও লাগে, হাওয়াও লাগে।

How To Tackle Rain During Durga Puja-Ananda Utsav

জুতো

পুজোয় নতুন জামা যেমন শখ করে কেনা হয়, তেমনই জুতোটাও হয় ততটাই প্রিয়। তাই নতুন জুতো ভিজে গেলে মন খারাপ হওয়া খুবই স্বাভাবিক।

১। বৃষ্টি ভেজা জুতো বাড়ি ফিরে এক বার পরিষ্কার জলে ধুয়ে নিন। বৃষ্টির জল জুতোয় শুকোলে দাগ হয়ে যেতে পারে।

২। টানা এক দিন জুতো রোদে শুকোতে দিন। যদি বৃষ্টি চলতে থাকে তাহলে অন্তত টানা দু’দিন হাওয়ায় শুকোতে হবে। পুরোপুরি না শুকোলে আবার পরবেন না।

৩। রোদে শুকোলে জুতোর সোঁদা গন্ধ চলে যাবে। যদি রোদে শুকনো সম্ভব না হয় বা শুকনোর পরও গন্ধ না যায় তাহলে জুতোর মধ্যে বেকিং সোডা দিয়ে এক-দু’দিন রেখে দিলেই গন্ধ চলে যাবে।

How To Tackle Rain During Durga Puja-Ananda Utsav

ব্যাগ

১। প্রথমেই ব্যাগ পুরো খালি করে ফেলুন। যদি ভিতরে থাকা জিনিসপত্র ভিজে গিয়ে থাকে তাহলে টিস্যু দিয়ে শুকনো করে মুছে নিন।

২। জলের মধ্যে বেকিং সোডা দিয়ে ব্যাগের বাইরেটা এক বার এই জলে ধুয়ে নিয়ে উল্টো করে শুকোতে দিন। এতে শুকিয়ে গেলে গন্ধ থাকবে না ব্যাগে। 

সর্বশেষ সংবাদ

দীপাবলি মানে অন্ধকার থেকে আলোয় ফেরা। ফুল, প্রদীপ, রঙ্গোলির রঙে মনকে রাঙিয়ে তোলা।
হেডফোন বা হেডসেট এমন বাছুন যা কি না আপনার কান আর শরীরকে কষ্ট না দেয়।
ছবি তোলার প্রথম ক্যামেরা কোডাক যে দিন বাজারে এল বিক্রির জন্য, সেই ১৮৮৮ সালে। পাল্টে গেল ছবি তোলার সংজ্ঞাই।
আগে এই প্রথা মূলত অবাঙালিদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও এখন লক্ষ্মীলাভের আশায় বাঙালিরাও সমান ভাবে অংশগ্রহণ করেন।
ধন কথার অর্থ সম্পদ, তেরাসের অর্থ ত্রয়োদশী তিথি।
এই একবিংশ শতাব্দীতে ১৫৯০-এর একটুকরো আওধকে কলকাতায় হাজির করেছেন ভোজনবিলাসী শিলাদিত্য চৌধুরী।
আমেরিকার সেন্ট লুইসের প্রায় ৪০০ বাঙালিকে নিয়ে আমরা গত সপ্তাহান্তে মেতে উঠেছিলাম দূর্গা পুজো নিয়ে।
শারদীয়ার রেশ কাটতে না কাটতেই আগমনীর বার্তা নিয়ে হাজির দীপান্বিতা।