ভারতচক্রে তারকাশি, তরুণ দলে অভিনব মণ্ডপ

নিজস্ব প্রতিবেদন
১১ অক্টোবর, ২০১৬, ১৮:৪৪:৩১ | শেষ আপডেট: ২৮ অক্টোবর, ২০১৬, ১৬:৫৫:২৩

দমদম পার্ক ভারতচক্র ক্লাবের পুজো প্রস্তুতি ছিল চমকে যাওয়ার মতোই। গত বারের পুজো শেষ হতে না হতে, নভেম্বর মাসেই শুরু হয়ে গিয়েছিল মণ্ডপ বানানোর কাজ। হ্যাঁ, নভেম্বরেই। তামার সুতো দিয়ে তৈরি হয়েছে অপূর্ব সব বুনন। প্রাচীন মিশর বা রোমের ‘ফিলিগ্রি’ শিল্পের অনুকরণে বানানো এগুলো। ভারতেও পরবর্তীতে এই শিল্পকর্ম আসে। নাম ছিল তারকাশি। এই শিল্প দিয়েই সেজে উঠছে গোটা মণ্ডপ। 
কাছেই দমদম পার্ক তরুণ দলের মণ্ডপে অবশ্য এত বৈভব নেই। কিন্তু ভাবনায়, বৈচিত্রে পিছিয়ে নেই তারাও। অসুরময় মণ্ডপে সুরের জয়ধ্বনি শোনাতে চেয়েছেন উদ্যোক্তারা। এক নজরে দেখে নিন দমদম পার্ক ভারতচক্র ক্লাব, তরুণ দল ছাড়াও আর কিছু পুজোর ঝলক।

সর্বশেষ সংবাদ

দীপাবলি মানে অন্ধকার থেকে আলোয় ফেরা। ফুল, প্রদীপ, রঙ্গোলির রঙে মনকে রাঙিয়ে তোলা।
হেডফোন বা হেডসেট এমন বাছুন যা কি না আপনার কান আর শরীরকে কষ্ট না দেয়।
ছবি তোলার প্রথম ক্যামেরা কোডাক যে দিন বাজারে এল বিক্রির জন্য, সেই ১৮৮৮ সালে। পাল্টে গেল ছবি তোলার সংজ্ঞাই।
আগে এই প্রথা মূলত অবাঙালিদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও এখন লক্ষ্মীলাভের আশায় বাঙালিরাও সমান ভাবে অংশগ্রহণ করেন।
ধন কথার অর্থ সম্পদ, তেরাসের অর্থ ত্রয়োদশী তিথি।
এই একবিংশ শতাব্দীতে ১৫৯০-এর একটুকরো আওধকে কলকাতায় হাজির করেছেন ভোজনবিলাসী শিলাদিত্য চৌধুরী।
আমেরিকার সেন্ট লুইসের প্রায় ৪০০ বাঙালিকে নিয়ে আমরা গত সপ্তাহান্তে মেতে উঠেছিলাম দূর্গা পুজো নিয়ে।
শারদীয়ার রেশ কাটতে না কাটতেই আগমনীর বার্তা নিয়ে হাজির দীপান্বিতা।