বাজার মাতাতে চার দরজার রেফ্রিজারেটর কম যাচ্ছে না

স্বপন দাস
১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ১০:০৭:৫৮ | শেষ আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ১৯:১১:৪৬
একটা উৎসব এগিয়ে এলে আমরা চাই, আমাদের ঘরকে সাজাই নতুন নতুন জিনিসে। সারা বছর ধরে পরিকল্পনা করে, সঞ্চয় করে এগিয়ে যেতে হবে। আর কী কিনব? আমার বাজেট কত হবে? তা নির্দিষ্ট করতে হবে আগে থেকেই। দেখবেন তা হলেই আপনার ইচ্ছাপূরণ আপনার হাতের মুঠোয়!
ছবি: সংগৃহীত।

এ বার আসা যাক আপনার মনের ইচ্ছার কথায়। এই মরশুমে হয়তো একটা রেফ্রিজারেটর কেনার চিন্তা করছেন।সেটা আর পাঁচ জনের থেকে আলাদা হবে, সঙ্গে থাকতে হবে বনেদিয়ানা ও আভিজাত্য।আপনার সেই চিন্তায় একটু সাহায্য করা যাক।

সেই প্রসঙ্গে আগে আসি রেফ্রিজারেটরের বিবর্তনের কথায়।২০১৭ সালে দু’পাল্লার রেফ্রিজারেটর থেকে এসেছে ডোর ইন ডোর কনসেপ্ট। সঙ্গে ইনভার্টার টেকনোলজি। আবার সেই ২০১৩ থেকে পরীক্ষানিরীক্ষা করে রেফ্রিজারেটরকেও নিয়ন্ত্রণ করার রাস্তা স্মার্ট ফোনের অ্যাপের কব্জায় করে দিয়েছে নির্মাতা কোম্পানিগুলি। ফলে আধুনিকতার এক চূড়ান্ত রূপ এ বার ইলেক্ট্রনিক পণ্যের দোকানে গিয়ে দেখার একটু চেষ্টা করলে ক্ষতি কী। হয়তো দাম সাধ্যের নাগালে থাকতে না-ও পারে, কিন্তু দেখতে তো আর পয়সা লাগে না। আর যাদের একটু কেনার ক্ষমতা আছে তাদের জন্য বলি, সর্বাধুনিক এই সব রেফ্রিজারেটরের দাম ৬৫ হাজার থেকে ২ লাখ ৪৬ হাজার টাকা পর্যন্ত। শোরুমে সাজানো অবস্থায় ডেমো দেখে অর্ডার করে দিলে বাড়িতে চলে আসবে।

শহরে এখনও বেশি চাহিদা স্মার্ট ডিজিটাল ইনভার্টার টেকনোলোজির (কেননা, এই কারিগরির ফ্রিজ নিলে বিদ্যুৎ সাশ্রয় অনেক বেশি।) এবং ফ্রেঞ্চ ডোর রেফ্রিজারেটরের।তবে চার দরজা বা দু’দরজার ফ্রিজের চাহিদাও ফেলনা নয়। আমরা এত দিন একপাল্লার রেফ্রিজারেটর দেখে অভ্যস্ত। এ বার দু’পাল্লার, সাইড বাই সাইড ডোর, ফোর ডোর-এর রেফ্রিজারেটর আমাদের সামনে। এমনকী, ঠাণ্ডা জলের জন্য ফ্রিজ থেকে বোতল বের করার দিনও শেষ। রেফ্রিজারেটরের দরজাতেই আছে ঠাণ্ডা জলের কল। তার থেকে বোতল ভরে নিলেই শান্তি। তবে ফ্রিজের দরজা বেশি হওয়ার সুবিধার কথা একটু বলি। আমরা ফ্রিজ খুললেই একটা ঠাণ্ডা হাওয়া বেরিয়ে যায়। দরজা বেশি হলে আমাদের মূল ফ্রিজের দরজা খোলার ঝামেলা নেই, পাল্লায় থাকা দরজা খুলেই আমার প্রয়োজনীয় জিনিস নিয়ে নিলাম। আর ভেতরের ঠাণ্ডা হাওয়া না বেরনোয় বিদ্যুৎ সাশ্রয় ৫৭ শতাংশর বেশি বলে দাবি নির্মাতাদের।

4 Door Refrigerator Is Trending This Durga Puja- Ananda Utsav 2017

একটু দেখে নিই ফ্রিজ কেনার আগে কী কী বিষয় জেনে যেতে হবে:

প্রথমেই দেখতে হবে যেটি নিচ্ছি সেটি ঘর বা রান্নাঘরের সঙ্গে মানানসই হচ্ছে কি না।সঙ্গে আমাদের পকেট পারমিট করছে কি না। এই প্রসঙ্গে জেনে রাখা ভাল:

ক। ফ্রেঞ্চ ডোর ফ্রিজ: দু’টি দরজাই বাইরের দিকে খুলবে, আর ফ্রিজার থাকবে নীচে।

খ। সাইড বাই সাইড: দু’টি দরজাই বাইরের দিকে খুলবে। কিন্তু ফ্রিজার ও ফ্রিজ একে অপরের সঙ্গে থাকবে।

একটু বড় পরিবারের জন্য চার দরজার ফ্রিজ অনেকেই খুঁজছেন। একটু দেখে নিই কেমন এটি। সাধারণত তিনটি ধাপ থাকে এই ধরনের ফ্রিজে।একদম উপরে ফ্রেঞ্চ ডোর স্টাইল, মাঝখানে ড্রয়ার টাইপ ফ্রিজ, নীচে ফ্রিজার। এই ফ্রিজে বেশি জায়গা, তাই জিনিস রাখা যাবে বেশি।

4 Door Refrigerator Is Trending This Durga Puja- Ananda Utsav 2017

এখন বেশ কিছু রেফ্রিজারেটর ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী দরজার সঙ্গে একটি পিউরিফায়ার ঠাণ্ডা জল পাওয়ার ব্যবস্থা করে দিয়েছে। দাম এক লাখ টাকা থেকে শুরু।

তবে মনে রাখবেন, আমাদের চিরাচরিত ফ্রিজ আজও আছে। তার চাহিদার পরিবর্তন হয়নি। তবে ফ্ল্যাটের আকারের সঙ্গে মানানসই করে, জায়গা দেখে বাড়িতে ফ্রিজ আনবেন। 

সর্বশেষ সংবাদ

দীপাবলি মানে অন্ধকার থেকে আলোয় ফেরা। ফুল, প্রদীপ, রঙ্গোলির রঙে মনকে রাঙিয়ে তোলা।
হেডফোন বা হেডসেট এমন বাছুন যা কি না আপনার কান আর শরীরকে কষ্ট না দেয়।
ছবি তোলার প্রথম ক্যামেরা কোডাক যে দিন বাজারে এল বিক্রির জন্য, সেই ১৮৮৮ সালে। পাল্টে গেল ছবি তোলার সংজ্ঞাই।
আগে এই প্রথা মূলত অবাঙালিদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও এখন লক্ষ্মীলাভের আশায় বাঙালিরাও সমান ভাবে অংশগ্রহণ করেন।
ধন কথার অর্থ সম্পদ, তেরাসের অর্থ ত্রয়োদশী তিথি।
এই একবিংশ শতাব্দীতে ১৫৯০-এর একটুকরো আওধকে কলকাতায় হাজির করেছেন ভোজনবিলাসী শিলাদিত্য চৌধুরী।
আমেরিকার সেন্ট লুইসের প্রায় ৪০০ বাঙালিকে নিয়ে আমরা গত সপ্তাহান্তে মেতে উঠেছিলাম দূর্গা পুজো নিয়ে।
শারদীয়ার রেশ কাটতে না কাটতেই আগমনীর বার্তা নিয়ে হাজির দীপান্বিতা।