মনপসন্দ ক্যামেরায় ছবি তুলুন আনন্দে

রত্নাঙ্ক ভট্টাচার্য
১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১৭:৪৮:২৭ | শেষ আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ১৯:১১:৪৬

পুজো মানেই গুচ্ছের স্মৃতি। হাতে স্মার্টফোন আসার পরে সেই স্মৃতিরা হুড়মুড়িয়ে ছবিতে ঢুকে পড়ছে। মণ্ডপে ঢুকলেই দেখবেন ফোন উঁচিয়ে হাজার হাজার হাত।

কিন্তু,তার পরেও কারও খুঁতখুঁতে মন। ছবিটা আরও ভাল করে তুলতে চান। স্মার্টফোনের ক্যামেরায় তাঁদের মন ভরা মুশকিল। সেই শখ মেটাতে তিনটি এসএলআর ক্যামেরার কথা ভাবতে পারেন।

ক্যামেরার জগতে ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগান বা বার্সেলোনা-রিয়াল মাদ্রিদ হল ক্যানন আর নিকন। কাকে বাছবেন তা আপনার ইচ্ছা। যেমন,নিকন সম্প্রতি বাজারে আনছে ডি৩৪০০। এটি নিকনের ডি৩৩০০ জায়গাটি নেবে।  সাধারণের সাধ্যের মধ্যে রাখতেএই ক্যামেরাটি নিয়ে এসেছে নিকন।

Click Durga Puja Special Pics with Camera

এই ক্যামরার বড় আকর্ষণ নিকনের ‘স্ন্যাপব্রিজ’ প্রযুক্তি। এর সাহায্যে লো এনার্জি ব্লুটুথের মাধ্যমে ট্যাব বা মোবাইলে সরাসরি ছবি পাঠাতে পারবেন। তবে এখানে ওয়াই-ফাই নেই।নিকনের দাবি, এই ক্যামেরায়ব্যাটারির শক্তি বাড়ানো হয়েছে। এক বার পুরো চার্জ হলে ১২০০ বার ছবি তোলা যাবে।রয়েছে ২৪ মেগাপিক্সেল এপিএস-সি সিমস সেন্সার। ১০০ থেকে ২৫৬০০ আইএসও এবং সর্বোচ্চ শাটার স্পিড পাওয়া যাবে ১/৪০০০ সেকেন্ড। ১০৮০পি-তে ভিডিও রেকর্ড করাগেলেও ডি৩৩০০ মতো এই ক্যামেরায় বাইরের কোনও দিকে কোনও হেডফোন নেই। এই ক্যামেরাটির দাম পড়বে প্রায় ৪৩ হাজার।

নিকনের এই ক্যামেরার মূল প্রতিদ্বন্দ্বী ক্যাননের ১৩০০ডি। চলতি বছরের মার্চেই ক্যামেরাটি বাজারে এনেছে ক্যানন। ১৮ মেগাপিক্সের এপিস-সি সিমস সেন্সার। আইএসও ১০০ থেকে ৬৪০০। সবচেয়ে বড় সুবিধা এখানে ওয়াইফাই ও নেয়ার ফিল্ড কমিউনিকেশন (এনএফসি)-এর সুবিধা আছে। ফলে খুব সহজে ছবি ট্রান্সফার করা যায়। ফলে যাঁরা ছবি তুলে চট জলদি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিতে চাল তাঁদের জন্য এই ক্যামেরা আদর্শ বলে ক্যাননের দাবি। রয়েছে ডিআইজিআইসি-চার প্রযুক্তি। ফলে ছবির দ্রুত প্রসেসিং হবে। আর নিকনের মতো ১০৮০পিতে ভিডিও রেকর্ড করা যাবে। ক্যামেরাটির দাম পড়বে ২ হাজার ৯৯৫ টাকার মতো। তবে সঙ্গে ৫৫-২৫০ লেন্সটি নিলে দাম পড়বে ৩৮ হাজার ৯৯৫ টাকা।

Click Durga Puja Special Pics with Camera

এই দুই মহাশক্তিধরের পাশে দেখতে পারেন ফুজির এক্সটি-২ ক্যামেরাটি। এতে রয়েছে এক্সটান্স সিমস-তিন এপিএস-সি সেন্সর। থাকছে এক্স প্রসেসর প্রো ইমেজ প্রেসেসিং চিপ। এর ফলে অটো ফোকাস দ্রুত হয়। একই সঙ্গে অটো ফোকাস পয়েন্টের সংখ্যা বাড়িয়ে ৩২৫ করা হয়েছে।তা ছাড়া অটো ফোকাসের শক্তি বাড়ানো হয়েছে। ফলে কোনও চলমান বস্তুর উপরে অটোফোকাস কাজ করে যাবে। আইএসও হবে ১০০ থেকে ৬৪০০। সর্বোচ্চ শাটার স্পিড ১/৮০০০ সেকেন্ড। এ ছাড়া এখানে ৪কে ভিডিও তোলা যাবে। তবে এই ক্যামেরার দাম এক লক্ষ টাকারও বেশি।

ছবি সংগৃহীত।

 

 

সর্বশেষ সংবাদ

দীপাবলি মানে অন্ধকার থেকে আলোয় ফেরা। ফুল, প্রদীপ, রঙ্গোলির রঙে মনকে রাঙিয়ে তোলা।
হেডফোন বা হেডসেট এমন বাছুন যা কি না আপনার কান আর শরীরকে কষ্ট না দেয়।
আগে এই প্রথা মূলত অবাঙালিদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও এখন লক্ষ্মীলাভের আশায় বাঙালিরাও সমান ভাবে অংশগ্রহণ করেন।
ধন কথার অর্থ সম্পদ, তেরাসের অর্থ ত্রয়োদশী তিথি।
এই একবিংশ শতাব্দীতে ১৫৯০-এর একটুকরো আওধকে কলকাতায় হাজির করেছেন ভোজনবিলাসী শিলাদিত্য চৌধুরী।
আমেরিকার সেন্ট লুইসের প্রায় ৪০০ বাঙালিকে নিয়ে আমরা গত সপ্তাহান্তে মেতে উঠেছিলাম দূর্গা পুজো নিয়ে।
শারদীয়ার রেশ কাটতে না কাটতেই আগমনীর বার্তা নিয়ে হাজির দীপান্বিতা।
সকলকে সাজিয়ে তুলতে দিওয়ালির সম্ভার নিয়ে হাজির ডিজাইনার শান্তনু গুহ ঠাকুরতা।