যাত্রী সুরক্ষা-সহ নানা বৈশিষ্ট্য নিয়ে বাজারে হাজির স্কোডা র‍্যাপিড অনিক্স

জয়দীপ সুর

১৩ অক্টোবর ২০১৮ ১৭:১৯
শেষ আপডেট: ২২ অক্টোবর ২০১৮ ১৬:২০

সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হাজির র‍্যাপিড অনিক্সে ।


স্কোডা ইন্ডিয়ার নতুন গাড়ি র‍্যাপিড অনিক্স ভারতের বাজারে এল ৯ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা দামে। ‘এক দেশ এক দাম’ এই ভাবনায় পুরো দেশজুড়ে এক্স শোরুমের দাম সমান রাখা হল। র‍্যাপিড অনিক্স বাজারে দু’টি রঙে পাওয়া যাবে, লাপিজ ব্লু এবং ক্যান্ডি হোয়াইট।

ডিজাইনের দিক থেকে নামের সঙ্গে গাড়ির মিল রেখে কোম্পানির নিজস্ব ছাপ বর্তমান। ইঞ্জিনের সামনে স্কোডা-র পরিচিত কালো গ্রিলের পাশে চকচকে ক্রোমের বর্ডার, চাকার রিমগুলি চকচকে কালো গ্লাস-পেইন্ট, একই রকমের রঙের বাইরের আয়না থেকে বডির নীচের অংশ, সব মিলিয়ে দেখতে বেশ আকর্ষণীয়।

শুধু বাইরের দিকে নয়, ভিতরের দিকেও বৈশিষ্ট্যে ভরপুর। ডুয়াল টোন ইবনি-স্যান্ডের ইন্টিরিয়র, তাতে আবার কাঠের ডিজাইন। নতুন ড্রাইভিং হুইলের নীচের দিকে চামড়ার কভার, সেটা আবার কালো সুতো দিয়ে সেলাই। সব মিলিয়ে গাড়ির বাইরে থেকে ভেতরে, কালো রঙের উপস্থিতি ডিজাইন মাথায় রেখে করা হয়েছে।
 

আরও পড়ুন: গাড়ি কেনার আগে এগুলি মাথায় রাখুন​

গাড়ির সামনেই ৬.৫ ইঞ্চির একটি টাচ স্ক্রিন রয়েছে, তাতে হাজির স্কোডা-র ‘ড্রাইভ’ সিস্টেম। দরকার আপনার স্মার্টফোন, সেটা ‘ড্রাইভ’-এর সঙ্গে সংযোগ করে ডিসপ্লেতে ম্যাপ থেকে মিডিয়া প্লেয়ার, যা চাইবেন চালাতে পারবেন। সমস্ত ইনস্টলড সফটওয়্যার মিররলিঙ্ক, আপেল কারপ্লে আর অ্যানড্রয়েড অটো দ্বারা আপনার ফোনে সাপোর্ট করবে। রয়েছে ক্লাইমেট্রনিক, সামনে পিছনের এক কন্ট্রোল করতে পাবেন, রয়েছে ১২ ভোল্টের সকেট, ফলে ফোন চার্জ দেওয়া নিয়ে কোনও সমস্যা রইল না। রয়েছে অ্যাডজাস্টেবেল সিট, রিমোট কন্ট্রোল দিয়ে সেন্ট্রাল লকিং, মাল্টি-ফাংশনাল ডিসপ্লে।

গ্রাফিক: তিয়াসা দাস।

আরও পড়ুন: পুজোয় কিনুন এই স্মার্ট স্কুটি, দাম মাত্র...​

সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হাজির র‍্যাপিড অনিক্সে । দু’টি এয়ারব্যাগ, আন্টি লক ব্রেকিং সিস্টেম, রিমোট দ্বারা সেন্ট্রাল কার লক। এ টি মডেলে রয়েছে ইলেকট্রনিক স্টেবিলিটি কন্ট্রোল,  হিল হোল্ড কন্ট্রোল হাজির এ টি পেট্রল ও ডিজেল দুটোতেই। ১.৫ লিটারের ডিজেল ইঞ্জিন এবং ১.৬ লিটারের পেট্রল ইঞ্জিনের ৪টি গাড়ির মধ্যে একটা করে ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশন, একটা করে অটোম্যাটিক। ডিজেল ইঞ্জিনের গাড়ির মাইলেজ প্রায় ২১ কিমি, ও দিকে পেট্রল গাড়ির মাইলেজ ১৫ কিমি প্রতি লিটারে।

শুধু বিক্রি করার আগে নয়, বিক্রি করার পরেও গ্রাহকের জন্য রয়েছে বিশেষ সুবিধে। ৪ বছরের সার্ভিস ও কেয়ার প্রোগ্রাম থাকবে, যাতে ৪ বছরের জন্য ওয়ার‌্যান্টি এবং ওই ৪ বছর ২৪ ঘণ্টার জন্য রোড সাইড অ্যাসিস্ট্যান্স, যা কি না স্কোডা-র গাড়ি মাত্রেই বর্তমান।