সিডানের বাজারে ফেরত আসছে হন্ডা সিভিকের টেনথ্ ভার্সন

জয়দীপ সুর

০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১১:৪২
শেষ আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৩:৩৪

নতুন হন্ডা সিভিককে দেওয়া হয়েছে এক স্পোর্টি লুক, ক্রোম ফ্রন্ট গ্রিল, এলইডি হেডলাইট, এলইডি ডিআরএল।


জাপানি গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা হন্ডা তাদের বিখ্যাত গাড়ি হন্ডা সিভিকের নতুন মডেল আনতে চলেছে। এটি তাদের সিভিক মডেলের দশম সংস্করণ। গ্রাহকদের কাছে অত্যন্ত প্রিয় হওয়ায় এটি বর্তমানে হন্ডার সবচেয়ে বেশি বিক্রিত গাড়ি। হন্ডা সিভিকের এই নতুন মডেল হল উন্নত প্রযুক্তির সঙ্গে আধুনিক ডিজাইনের সংমিশ্রণ। এই গাড়ি সম্পর্কে হন্ডার প্রেসিডেন্ট এবং সিইও গাকু নাকানিসি বলেন, “গাড়িটি মুক্তি পাওয়ার আগে প্রি-বুকিংয়েই যে বিপুল পরিমাণ সাড়া মিলেছে তাতে আশা করা যায় যে হন্ডার সিভিক গাড়ির বাজারে সিডান গাড়ির দূরাবস্থা কাটাতে সক্ষম হবে।”

হন্ডা সিভিকের নতুন মডেলে বাহ্যিক ও অভ্যন্তরীণ ডিজাইনে বিপুল পরিবর্তন আনা হয়েছে। নতুন হন্ডা সিভিককে দেওয়া হয়েছে এক স্পোর্টি লুক, ক্রোম ফ্রন্ট গ্রিল, এলইডি হেডলাইট, এলইডি ডিআরএল (ডে-টাইম রানিং লাইট)। 'সি' আকারের টেল ল্যাম্প গাড়িটিকে অনন্য করে তুলেছে। অভ্যন্তরীণ ডিজাইনের ক্ষেত্রে এই গাড়িতে ব্যবহার করা হয়েছে আধুনিক ককপিট ডিজাইন। গাড়িটির ভিতরে ব্যবহার করা হয়েছে নরম এক উপকরণ, যা চালক ও আরোহীদের আরাম দেবে যাত্রার সময়।

হন্ডা সিভিক পাওয়া যাবে মোট পাঁচটি সংস্করণে, ১.৮ লিটারের আই-ভিটিইসি পেট্রোল ইঞ্জিনে ভি সিভিটি, ভিএক্স সিভিটি,জেড এক্স সিভিটি মডেল পাওয়া যাবে। সিটিভি অর্থ্যাৎ কন্টিনিউয়াসলি ভ্যারিয়েবল ট্রান্সমিশন। এবং ১.৬লিটারের আই-ডিটিইসি টার্বো ডিজেল ইঞ্জিনে পাওয়া যাবে ভিএক্স এমটি, জেডএক্স এমটি, যা ৬ স্পিড ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশনে সক্ষম।

আরও পড়ুন: ভারতে প্রথম বার কিয়া মোটরস, নিয়ে এল মিড-এসইউভি

 

শক্ত কিন্তু হালকা ওজনের হন্ডা সিভিকে ব্যবহার করা হয়েছে নতুন ডিজাইনের চেসিসের। এর আরেক নতুন সংযোজন হল মাল্টি লিংক রিয়ার সাস্পেনশন যা গাড়িটিকে সাধারণ সময়ে এবং বিপদকালীন অবস্থাতেও   গাড়ির ভারসাম্য রক্ষা করতে সাহায্য করবে। ভারতীয় রাস্তার কথা মাথায় রেখেই সিভিকের ভারতীয় মডেলের সামনে ২০এমএম ও পিছনে ১৫এমএম আকার বাড়ানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: এক মাসেই বুকিং ১০ হাজার! সস্তার এই এসইউভি-র খুঁটিনাটি​

যেকোনও রকমের দুর্ঘটনা বা সংঘর্ষের হাত থেকে গাড়িকে রক্ষা করতে দেওয়া হয়েছে হন্ডার বিশেষ ‘অ্যাক্টিভ সেফটি’, প্যাসিভ সেফটি’ এবং ‘ড্রাইভার অ্যাসিস্টেন্ট সেফটি’র মত ফিচার দেওয়া হয়েছে।