‘টরন্টো উৎসব কালচারাল অ্যাসোসিয়েশন’-এ নিষ্ঠা এবং নস্ট্যালজিয়ার মিশেল

নিজস্ব প্রতিবেদন

১৩ অক্টোবর, ২০১৮, ১৪:৪৬
শেষ আপডেট: ১৩ অক্টোবর, ২০১৮, ১৯:২৪

টরন্টো শহরে বাঙালির সংখ্যা প্রচুর। বেশ কিছু পুজোও হয়।


তিন-চারজন বাঙালি এক হলেই, অবধারিত আড্ডা। আর সেই আড্ডাই থেকেই বহু আইডিয়াও জন্মায়। এমন আড্ডা থেকেই সুদূর টরেন্টোতে কয়েকটি পরিবার দুর্গাপুজোর পরিকল্পনা করেছে এই প্রথমবার। সাতটি পরিবার ‘টরন্টো উৎসব কালচারাল অ্যাসোসিয়েশন’ নামের একটি সংগঠন তৈরি করেছে। তাঁদের এ বারের পুজোতে থাকছে নিষ্ঠা এবং নস্ট্যালজিয়ার মিশেল।

টরন্টো শহরে বাঙালির সংখ্যা প্রচুর। বেশ কিছু পুজোও হয়। কিন্তু এই সংগঠনের সদস্যরা দুর্গাপুজোকে সর্বভারতীয় রূপ দিতে চেয়েছিলেন। তাই এই সংগঠনে অবাঙালি সদস্য সংখ্যাও কম নয়। সকলে একসঙ্গে পুজোর কাজ করছেন। প্রতিমা গিয়েছে কলকাতার কুমোরটুলি থেকে।

দুর্গাপুজো মানেই তো শুধু প্রতিমা বরণ বা মন্ত্রপাঠ নয়, সঙ্গে থাকছে খাওয়াদাওয়ার বিপুল আয়োজন। থাকবে শপিংয়ের সুযোগ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সদস্যদের পরিবারের ছোট-বড় সকলেই এই সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছেন। কলকাতা থেকে বেশ কিছু শিল্পী টরন্টোর এই পুজোর অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। এই সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন পরিবারের সদস্যদের লেখা গল্প, কবিতা আর আঁকা ছবির সম্ভার নিয়ে প্রকাশ হচ্ছে ‘উৎসব’ নামের একটি পত্রিকা।

আরও পড়ুন: সানফ্রানসিস্কোর বে এলাকার দুর্গা পুজো আসলে মাটির গন্ধের অনুভব​

আরও পড়ুন: আল্পস থেকে সপরিবারে মা আসেন মিউনিখের মাতৃমন্দিরে​