উৎসবের মরসুমে সোনার গয়নার সাজেই হয়ে উঠুন অনন্যা!

নিজস্ব প্রতিবেদন

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১৩:০৫
শেষ আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২১:০৪

গয়না কিনতে যাওয়ার আগে জেনে নিন কী রকম গয়না পুজোর ফ্যাশনে ‘ইন’।


দূর্গাপুজোর জন্য কেনাকাটা নিশ্চই এখন শেষের পথে। ষষ্ঠী থেকে দশমী কোন দিন কোন পোশাক পরবেন সেটা তো ভেবেই ফেলেছেন। কিন্তু কোন দিন কোন গয়না পরবেন ভেবে দেখেছেন কি? সঠিক পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না বদলে দিতে পারে আপনার সম্পূর্ণ সাজ। গয়না কিনতে যাওয়ার আগে জেনে নিন কী রকম গয়না পুজোর ফ্যাশনে ‘ইন’।

সোনার গয়না আমাদের ভীষণ প্রিয়। তবে সোনার দাম এখন আকাশ ছোঁয়া। তাই গয়না কেনার আগে অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে বাজেটের কথা। হালফ্যাশনে হালকা সোনার গয়না পরতেই মানুষ বেশি পছন্দ করেন। বিভিন্ন জুয়েলারি সংস্থা এখন ভারী ডিজাইনে হালকা ওজনের গয়নাও বানায়। আপনার পছন্দের নকশার এই সব হালকা গয়নাতেই নজর কাড়ুন সবার।

পুজোর সাজপোশাকের সঙ্গে সোনার গয়না সব সময় ভালই যায়। অষ্টমীর সকালের সাজে লাল শাড়ি আর গলায় একটা সীতাহার কিংবা নেকলেস, হাতে একটা বালা— আপনার সাজে আনবে আভিজাত্যের ছোঁয়া। পুরনো দিনে মা-ঠাকুমাদের গয়নার নকশা কিন্তু কোনও দিনই ফ্যাশনে অপ্রাসঙ্গিক নয়। বাড়িতে যদি এ রকম গয়না থাকে তা হলে পালিশ করিয়ে নিন পুজোর আগে। তা না হলে বিভিন্ন গয়না প্রস্তুতকারক সংস্থাতে এখন পেয়ে যাবেন হালকা নকশার সীতাহার। সাবেকি সাজে সোনার গয়নাতেই করুন পুজোর সাজ সম্পূর্ণ।

আরও পড়ুন:পেটিকোট আর ব্লাউজ ছাড়া শাড়ি!কেমন হবে পোশাকের টিমিং?​

এখন অনেকেই গলায় হার পরতে ভালবাসেন না। পুজোতেও হালকা সাজেই নিজস্ব রুচির পরিচয় দিতে ভালবাসেন। সে ক্ষেত্রে কানে পরে ফেলতেই পারেন সোনার ঝুমকো কিংবা কানপাশা। কানের বালা পরতে চাইলেও নামীদামি গয়না প্রস্তুতকারক সংস্থাতে পেয়ে যাবেন হরেক রকম ডিজাইনের সম্ভার।

হাতের গয়নার ক্ষেত্রে মান্তাসা, চূড়, কঙ্কণ চিরকালই  বাঙালির পছন্দের তালিকার শীর্ষে থাকে। দুই হাতেই চূড় কিংবা কঙ্কণ না পরে অপর হাতে থাকুক কয়েক গাছা সোনার চুড়ি। এ ছাড়া এক হাতে ঘড়ি এবং অপর হাতে একটা বালা পরলেই আপনার পুজোর স্মার্ট লুক হবে সম্পূর্ণ।

আরও পড়ুন:পুজোর ভিড়ে গরমে মেক আপ ঘাঁটার ভয়? এই জাদুতেই ধরে রাখুন সাজগোজ!​

তবে কেবল পুজোর সাজের কথা মাথায় রেখে নয়, গয়না কেনার সময় অবশ্যই ভাবুন সেই গয়না আপনার লকারেই পড়ে থাকবে না তো? আমাদের দৈনন্দিন জীবনে কলেজ, অফিস যাতায়াতের ক্ষেত্রে  গলায় সরু চেন, কানে একটা টপ আর হাতে চুড়িতেই আমরা আরাম বোধ করি। পুজোয় কুর্তি কিংবা চুড়িদারের সঙ্গেও এই সব হালকা সোনার গয়নাই বেশ ভাল মানায়। তাই সোনা কেনার ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করুন বেশ ভেবেচিন্তে।