পুরুষের ফ্যাশনেও ঢুকে পড়েছে নানা বিকল্প, এ বার কোন ট্রেন্ড ‘ইন’?

স্রবন্তী বন্দ্যোপাধ্যায়

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১৩:৪৭
শেষ আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১৪:০২

এ বার দুর্গা পুজোর ফ্যাশনে পুরুষরাও কিন্তু এমন দাবি করতেই পারেন।


‘সে যদি জামদানিতে প্যান্ডেলের রাত জমিয়ে দিতে পারে, তা হলে আমিও পারি জামদানির পঞ্জাবিতে তাঁর পথ আটকে দিতে।’— এ বার দুর্গা পুজোর ফ্যাশনে পুরুষরাও কিন্তু এমন দাবি করতেই পারেন।

ছেলেদের পুজোর সাজ মানেই নতুন কিছু টি-শার্ট আর ডেনিম। কিংবা বড়জোর নতুন পাঞ্জাবি। এই ধারণা এখন অনেক পুরনো। চার দিকের শপিং মল আর দোকানগুলো দেখলেই বোঝা যায় ছেলেদের ফ্যাশনেও এখন ঢুকে পড়েছে প্রচুর বিকল্প। এ বার কোন ট্রেন্ডগুলো ‘ইন’? জানাচ্ছেন অনুশ্রী মলহোত্র।

‘‘পুজোর দিনগুলো একটু এথনিক কিছু গায়ে চড়ালে মন্দ লাগবে না। তবে সনাতনী সাজ মানেই একঘেয়ে পাঞ্জাবি নয়। শর্ট আফগানি স্টাইলের কুর্তার সঙ্গে স্টিচড ধোতি প্যান্টস পরতে পারেন। এগুলো আলাদা করে সামলানোর ঝক্কি নেই। বন্ধগলার সঙ্গে চুড়িদারও ভাল দেখাবে। তবে এই মুহূর্তে বাজারে সবচেয়ে বেশি চলছে কুর্তা আর মোদী জ্যাকেট। আপনি একঘেয়েমি থেকে বেড়িয়ে এসে জ্যাকেটের কাটটাই পালটে দিন। সাহসী হলে পড়ুন ফ্লোরাল প্রিন্টের অ্যাসিমেট্রিক জ্যাকেট।’’ বললেন ডিজাইনার অনুশ্রী।

পুজোয় ছেলেরা অনেক বেশি এক্সপেরিমেন্টাল হয়ে উঠেছে। যেমন ডাবল লেয়ার্ড কুর্তা। কুর্তায় বক্স প্লিট। খাদিতে লেয়ার ড্রেসিং। বিশেষ করে প্লিটিং, কাটস আর এমব্রয়ডারির দিকে ঝোঁক বেশি।

আরও পড়ুন: পোশাক ও গয়নায় ‘উমার সাজে’, আয়োজনে অপরাজিতা আঢ্য

জিনস নয়, ধোতি প্যান্ট

জিনস নয়, বিভিন্ন কাটের ধোতি প্যান্টের চল তৈরি হয়েছে। ধোতি প্যান্টের ক্ষেত্রে যেমন উপরের অংশটা হারেম প্যান্টের আদলে করে নীচটা চুরি পা করে রাখা হয়েছে। এটা ক্যারি করতে পারলে ব্যাক্তিত্বটাই বদলে যাবে। ধোতি প্যান্টের সঙ্গে কোলাপুরি না পরে বুট পরতে পারেন। চমক সেখানেই।

একটু জমকালো সাজের জন্য পাঞ্জাবির উপর লেয়ার করে পরতে পারেন লং জ্যাকেটও। কনট্রাস্ট রঙের পরলে দারুণ দেখাবে।

ফ্যাব্রিক

এ বারের ছেলেদের কালেকশনে কলমকারি, খাদি, ইন্ডিগো প্রিন্ট আর হ্যান্ড উইভ খাদির উপর স্টাইল অ্যান্ড কাট চলছে।

আরও পড়ুন: ফ্যাশনে কম যান না পুরুষও, কী ভাবে নজর কাড়বেন মহিলা মহলে?

রঙে চমক

আগে ছেলেরা পিঙ্ক পরলে হাসাহাসি করা হত। কিন্তু এ বার পুজোয় পাওডার পিঙ্কের চমক আসছে, সে শার্ট হোক বা কুর্তা। লেমন ইয়েলোও চোখে আরাম দেবে। তবে রঙ বা কাট খুব বেশি এক্সপেরিমেন্ট না করাই ভাল।

অ্যাক্সেসরি

ছেলেরা সাধারণত অ্যাকসেসরির ক্ষেত্রে খুব একটা নজর দেন না। স্মার্ট পোশাকের সঙ্গে ভুল অ্যাকসেসরি পরলে কিন্তু পুরো সাজটাই মাঠে মারা যাবে। ছেলেদের সাজের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অ্যাকসেসরি— জুতো। এথনিক পোশাকের সঙ্গে মানানসই কোলাপুরি চপ্পল পরতে পারেন। আর একটু সাহস সঞ্চয় করলে বুট পরে ফেলুন। নাগরাই জুতোও ভাল লাগে। তবে, পুজের ভিড় ঠেলে অনেক হাঁটতে হলে একটু আরামদায়ক জুতো পরাই ভাল। ক্যাজুয়াল পোশাকের সঙ্গে ‘অক্সফোর্ড শু’ বা ‘সেলর শু’ পরতে পারেন। নানা রকম প্রিন্টের ক্যানভাস জুতোও মানিয়ে যাবে।

পরামর্শ ও পোশাক: অনুশ্রী মলহোত্র