উৎসবের সেলিব্রেশনে লাগুক রামধনুর ছোঁয়া

পরমা দাশগুপ্ত

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১৭:০০
শেষ আপডেট: ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ২১:৫৯

তা হলে কোন কোন রং থাকছে এ বার পুজোর ফ্যাশনে? কোন রঙের হাত ধরে ফিরে আসবে উৎসবের চেনা আমেজ?


লাল-নীল-সবুজের মেলা বসেছে।

নাহ! ভরা সেপ্টেম্বরে দাঁড়িয়েও নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না এ বছর পুজোয় শহরজুড়ে এ ছবি দেখা যাবে কি না।  কিন্তু রোগের ভয় কবেই বা শরতের নীল বা পুজো-পুজো মেজাজটাকে কাবু করতে পেরেছে! না হয় হল না উৎসবের হুল্লোড়, না হয় কাটল ঘরে বসেই, তবু সাজগোজ, পেটপুজোর ভাল থাকাটুকুর ব্যবস্থা করে নেওয়া যায় নিজের মতো করেই।

আসলে পুজো মানে তো একমুঠো রং- পোশাকে, আর মনেও। আর এ বছরের পরিস্থিতিতে সে রংটুকু বড্ড জরুরিও বটে। তাই এই বেলা বরং ঝটপট জেনে নেওয়া যাক এ বছরের পুজোর সাজের রং ঠিক কোনগুলো।  হ্যাঁ শারদীয়া মানে অবশ্যই লাল। লাল পেড়ে সাদা শাড়ি ছাড়া কবেই বা অষ্টমী কাটিয়েছে চিরন্তন বাঙালি? তাই পুজোর রং-এর তালিকায় বরাবরের প্রথম স্থান তারই দখলে।

এ বছরের মনখারাপিয়া শহরে খানিকটা রোদ ছড়াতে পারে উজ্জ্বল রং। আর তাতেই সবচেয়ে আগে মাথায় আসে হলুদের বিভিন্ন শেডের কথা। সে সূর্যমুখী হলুদই হোক আর খুশিয়াল বাসন্তী রং, স্কার্ট-টপে ঝলমলে কন্যের ‘তার’ বুকে আগুন ধরাতে কতক্ষণই বা লাগবে? কিংবা ধরা যাক শরতের আকাশটার মতো এক নীল। সে শাড়িই হোক বা পাঞ্জাবি, দিব্যি মানাবে কিন্তু।

ডিজাইনার অভিষেক দত্তের কথাতেও উঠে এল একই ভাবনা। তাঁর কথায়, “অতিমারি-বিধ্বস্ত সময়টায় চার পাশে এখন শুধুই বিষণ্ণতা। পুজো অন্তত একটুখানি ভাল লাগা আনুক। আর সেটা করতে পারে পুজোর সাজ। আমার মনে হয় এই কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেও মন ভাল করার উপায় বা এক মুঠো খুশি হয়ে ফ্যাশনে ফিরে আসবে উজ্জ্বল রং।”

আরও পড়ুন: সেরামিকের এই সব গয়নায় বাজিমাত পুজোর ফ্যাশনে

পুজো মানে তো একমুঠো রং- পোশাকে, আর মনেও।

তা হলে কোন কোন রং থাকছে এ বার পুজোর ফ্যাশনে? কোন রঙের হাত ধরে ফিরে আসবে উৎসবের চেনা আমেজ?

অভিষেক বলছেন, “লাল বা উজ্জ্বল কমলার মতো পুজোর চিরাচরিত রং তো থাকছেই। সেই সঙ্গেই তালিকায় থাকছে অ্যাকোয়া শেডস, মানে সমুদ্র নীল বা সবুজের আভা। নীলের মধ্যে রয়্যাল ব্লু, তুঁতে আর পান্না সবুজ, বটল গ্রিনের মতো সবুজের নানা রকম ফেরের তাই পুজোর ফ্যাশনে পাল্লা ভারী। মেয়েদের যে কোনও সাজে এই রংগুলোই চোখে পড়বে বেশি। ছেলেরাও ইদানিং নীল বা সবুজের বিভিন্ন অন্যরকম শেডে মজেছেন। তবে তাঁদের পছন্দ হয়তো বা আরও এক ধাপ গাঢ় রঙের দিকে। আর হ্যাঁ, বরাবরের মতো আইভরি কিন্তু থাকছেই পুজোর সাজে।”

আরও পড়ুন: গয়না বা পোশাক নয়, স্যানিটাইজার হোল্ডারে হয়ে উঠুন অনন্য

এই অস্থির সময়টায় আসলে মনের ভিতরটা বড্ড বিবর্ণ। সাজটুকুই যা সম্বল। পুজোর ক’টা দিনে নানা রঙের ফ্যাশন যদি তাতে খানিক রং ফেরাতে পারে! ক্ষতি কী?