সনাতনী আহারেই বাহার, মেটে মটরশুঁটি মরিচ বানান এ ভাবে

রোশনি কুহু চক্রবর্তী

২৩ অক্টোবর ২০২০ ১২:৫০
শেষ আপডেট: ২৩ অক্টোবর ২০২০ ১৩:১৬

জিভের ভিতর দিয়া মরমে পশিবে প্রাণ, এ কথা বললে রাগ করবেন না কেউ নিশ্চয়ই, বাঙালির সেই চিরকালীন সনাতনী পদ মেটে চচ্চড়িকে একটু অন্যভাবে বদলে দিয়েছেন শেফ।


মাংসের মেটে শুনলেই জিভে জল আসে অনেকেরই। ভবানীপুরের মল্লিক বাড়িতে মেটে চচ্চড়ি ছাড়া দশমী অসম্পূর্ণ এ কথা কে না জানে। অনেক বাঙালি বাড়িতেই পুজোর স্পেশাল পদ মানেই পাঁঠার মাংস। তবে একই সঙ্গে পুজোর ভোজের সঙ্গে কোথাও একটা গিয়ে লিভার কারি বা মেটে চচ্চড়ি জড়িয়ে রয়েছে। রেড মিট খাওয়া অনেকেরই বারণ। তবে মেটে খেতে মানা নেই। কারণ হজম করতে অসুবিধা হয় না। নরম তুলতুলে মেটে মুখের মধ্যে গলে যাবে। সঙ্গে মাখনের গন্ধ আর দাঁতের মাঝে মাঝে কড়াইশুঁটির আহ্লাদ। জিভের ভিতর দিয়া মরমে পশিবে প্রাণ, এ কথা বললে রাগ করবেন না কেউ নিশ্চয়ই, বাঙালির সেই চিরকালীন সনাতনী পদ মেটে চচ্চড়িকে একটু অন্যভাবে বদলে দিয়েছেন শেফ। মেটে মটরশুঁটি মরিচ। সেই রান্নার সন্ধান দিলেন শেফ দেবজিৎ মজুমদার।

প্রণালী: পাঁঠার লিভার বা মেটে কুচি কুচি করে কেটে নুন দিয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে প্রথমে। এরপর একটি কড়াইয়ে সর্ষের তেল গরম করে তাতে আদা-রসুন বাটা, পেঁয়াজ কুচি, টোম্যাটো কুচি, ধনে গুঁড়ো দিয়ে নাড়াচাড়া করতে হবে। মেটে দিতে হবে এরপর। ভাল ভাবে নাড়াচাড়া করে যোগ করতে হবে মটরশুঁটি গুলি। নুন, গোলমরিচ স্বাদমতো দিয়ে নাড়তে হবে। এরপর মাখন ছড়িয়ে গরম গরম রুটির সঙ্গে পরিবেশন করুন মেটে মটরশুঁটি মরিচ।

আর পড়ুন: লালমাটির দেশে মেটে চচ্চড়ি আর রবিবারের মাংসের ঝোল

গ্রাফিক চিত্র :তিয়াসা দাস