৭০০ বছরের পুরনো পদে বাঙালি ফিউশন, লাসানিয়া প্রন উইথ চিজি পেস্তো ধনিয়া সস

সুমা বন্দ্যোপাধ্যায়

১১ অক্টোবর, ২০২০, ১৫:৩০
শেষ আপডেট: ১১ অক্টোবর, ২০২০, ১৭:০৪

লাসানিয়ার সঙ্গে বাঙালির চির-পরিচিত এঁচোড়-চিংড়ির যুগলবন্দি। সঙ্গে চিজে মাখ মাখ ধনিয়া পেস্তো সস।


শুধু ফরাসির সঙ্গে তামিলের মেলবন্ধনে সন্তুষ্ট হলেন না বাঙালি রন্ধনশিল্পী। বাংলার স্বাদ যোগ করতে না পারলে শিল্প কেন! এ ভাবনা থেকেই এঁচোড়, চিংড়ির সঙ্গে ইটালির লাসানিয়ার মেলবন্ধনে বানিয়ে ফেললেন অসাধারণ ফিউশন। পুজোর দিনে নাই বা গেলেন দেশ ভ্রমণে, কিন্তু ভিন দেশি খানা চলতেই পারে। পরিবারের সকলের জন্যে ঝটপট রেঁধে ফেলুন নতুন কোনওপদ। শেখালেন পুদুচেরিরইনস্টিটিউটঅব হোটেলম্যানেজমেন্টেরঅধ্যাপকশেফ বাপ্পাকুণ্ডু।

সময়টা ১৩০০ শতাব্দীর আশেপাশে। সেই সময়ে নেপলসে পাস্তা চাউমিনের পূর্বসূরি লাসানিয়া বানিয়ে তাক লাগিয়ে দেন এক রন্ধন শিল্পী।দুই প্রতিবেশী দেশ ইটালি আর ফ্রান্সের মানুষজন আপন করে নেয় স্বাদু ও পুষ্টিকর লাসানিয়াকে। বিশ্বের প্রাচীনতম রান্নার বই লিবের দে কোকিইনা-তে জানা যায় নেপলসে এই সুস্বাদু খাবারের উৎপত্তি। লাসানিয়ার সঙ্গে বাঙালির চির-পরিচিত এঁচোড়-চিংড়ির যুগলবন্দি। সঙ্গে চিজে মাখ মাখ ধনিয়া পেস্তো সস। ৭০০ বছরের পুরনো রান্নায় বাঙালি ছোঁয়া জুড়তে একটু পরিশ্রম আছে ঠিকই, কিন্তু সম্পূর্ণ এই ডিশ একাই ২০০ বললেও অত্যুক্তি হয় না,জিভে জল। শেফ বাপ্পা কুণ্ডুর দেওয়া রেসিপি বাড়িতে বানানো মোটেই কঠিন নয়।

লাসানিয়ার জন্য উপকরণ

আরও পড়ুন: তুলতুলে পাঁঠার মাংসে বাজিমাত, নেহারি খাস কী ভাবে বানায় ‘অওধ ১৫৯০’?

এঁচোড় চিংড়ির জন্য উপকরণ

প্রণালী: প্রথমে লাসানিয়া তৈরি করে রাখতে হবে। ময়দায় নুন তেল ও ডিম মিশিয়ে নিন। সামান্য জল দিয়ে শক্ত করে মেখে নিন। তেল দিয়ে পাতলা করে বেলে চৌকো করে কেটে রাখুন। যে পাত্রে লাসানিয়া বানাবেন তার মাপে ৭ /৮ টা পাতলা শিট বানাতে হবে। ফুটন্ত জলে শিট ফেলে ৩/৪ মিনিট রেখে জল ঝরিয়ে আলাদা করে রেখে দিন।

এবারে এঁচোড়-চিংড়ি বানাতে হবে। পেঁয়াজ, আদা, রসুন ও টোম্যাটো একসঙ্গে বেটে নিন। চিংড়ি ভাল করে ধুয়ে ছাড়িয়ে তেলে রসুন ফোড়ন দিয়ে অল্প করে ভেজে তুলে রাখুন। এঁচোড় অল্প ভাপিয়ে নরম করে রাখতে হবে। এবারে ভাজা চিংড়ির তেল বা ঘিয়ে পেঁয়াজবাটা-সহ সব মশলা দিয়ে কষে নিন। এঁচোড় ও চিংড়ি দিয়ে আরও কিছুক্ষণ কষে রান্না করে নিন। জল দেওয়ার দরকার নেই। নুন চিনি ও মশলার জলে এঁচোড় চিংড়ি মাখা মাখ হলে গরম মশলা ছড়িয়ে নামিয়ে রাখুন।

পেস্তো ধনিয়া সসের উপকরণ

প্রণালী: বেসিল, ধনে পাতা ও পেস্তা একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন। জল দেবেন না। ঘন বাটার মধ্যে অল্প অল্প চিজ ও অলিভ অয়েল যোগ করুন। ভাল করে ব্লেন্ড করতে হবে। ঘন সুন্দর সস বানানো হলে বার করে নিয়ে গোলমরিচ মেশালেই তৈরি।

আরও পড়ুন: দেশীয় ফিউশনে ‘এডিবল আর্ট’, পছন্দের নিরামিষ খেতে আসতেই হবে ‘গ্রেস’-এ

এবারে বেকিং ট্রেতে লাসানিয়া শিট রাখুন। অল্প করে এঁচোড় চিংড়ি দিন। উপরে শিট দিয়ে ঢেকে একই পদ্ধতিতে ৪/৫ লেয়ার এঁচোড় চিংড়ি দিয়ে লাসানিয়া দিয়ে চাপা দিন। উপরে পেস্তো সস সুন্দর করে ছড়িয়ে দিন। এর উপরে দিন কোরানো চিজ। প্রি-হিট ওভেনে ৫–৭ মিনিট ১৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে বেক করলেই রেডি ফিউশন খাবার। গরমাগরম পরিবেশন করার অপেক্ষা।

গ্রাফিক চিত্র :তিয়াসা দাস