ঘরের মধ্যেই সমুদ্রতট! সঙ্গে থাকবে দোলনাও

সুদীপ ভট্টাচার্য

০৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১৭:৪০
শেষ আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১৫:৪৪

সমুদ্রের পাড়ে গিয়ে হ্যামকে হেলান দিয়ে প্রায় সারাদিন কাটিয়ে দিতে পারি আমরা।জানেন,বাড়িতেও সেরকম পরিবেশ করে নেওয়া যায়।


ঢাকা শহরের দক্ষিণ দিকের একটি রেস্তরাঁতে বেশ কিছুদিন আগে একটি অন্দরসজ্জা দেখে চমকে উঠেছিলাম। সাধারণত এরকম সজ্জা অন্তত রেস্তরাঁতে দেখিনি কখনও।রিকশা এবং দোলনাতে বসে খাওয়ার ব্যবস্থা।যদিও দেশীয় খাবারের রেস্তরাঁ ছিল না ওটি,মূলত প্রাদেশিক খাবারের দোকান। কিন্তু তার সঙ্গে দেশীয় আচারে বসার ব্যবস্থা।

একটু অবাক হয়েছিলাম, এর চ্যালেঞ্জিং দিকের কথা ভেবে। দোলনার মতো দোদুল্যমান জিনিসে বসে টেবিলে রাখা খাবারের স্বাদ দেওয়া অদ্ভুত লাগে।কিন্তু সেখানে দেখলাম, যে ডেকোরেটিভ দোলনাগুলো রাখা হয়েছে সেগুলো খুব আস্তে আস্তে দোলে।এই হালকা দুলতে দুলতে খাবারের স্বাদ নেওয়ার পরিকল্পনাটা আমার খারাপ লাগেনি।

হ্যামক বা দোলনা বিছানার এই কনসেপ্ট ঘর সাজানোর আধুনিক অভিধানে ঢুকে পড়েছে আজকাল। সমুদ্রের পাড়ে গিয়ে হ্যামকে হেলান দিয়ে প্রায় সারাদিন কাটিয়ে দিতে পারি আমরা।জানেন,বাড়িতেও সেরকম পরিবেশ করে নেওয়া যায়।বসার ঘর যদি বেশ কিছুটা বড় হয় তা হলে এই নিরীক্ষাটা করতেই পারেন। দেওয়ালে শিল্পীকে দিয়ে আঁকিয়ে নিন সমুদ্র। কম খরচে সারতে চাইলে ওয়ালপেপারেও সমুদ্র পেয়ে যাবেন টালমাটাল নৌকা-সহ।সম্ভব হয়,মেঝেতে কিছুটা জায়গা ইঞ্চি দুয়েক বা তিনেক উচ্চতায় ঘিরে বিচের সাদা বালি বিছিয়ে দিন।সামনে অবশ্যই পা ঝাড়ার ব্যবস্থা রাখবেন। একটা স্যান্ডেল রাখবেন সবসময়,যাতে ধুলোপায়ে বেশি না লাগে।এবার সেই বালুর মধ্যে বসিয়ে দিন আর্টিফিসিয়াল ক্যাজুরিনা।সেজে উঠবে বিচ মানে আপনার‘বসার ঘর’।এবার সেখানে বসিয়ে দিন একটা হ্যামক।

আরও পড়ুন: এমন ড্রেসিং টেবিলেই খুলবে ঘরের সাজ!

তবে বালিতে ঘর পরিষ্কারের খাটনি ও সচেতনতা দুই-ই বাড়বে ভেবে সেই অংশ বাদ দিয়েও সমুদ্রের আমেজ বজায় রাখুন ওয়ালপেপার বা শিল্পীর আঁকা ছবিতে। তাতেও ডাইনিংয়ে হ্যামকের আভিজাত্য খাটো হবে না একটুও।

আরও পড়ুন: খুব খরচের দরকার নেই, এ ভাবে স্রেফ পর্দার গুণেই ঘর করে তুলুন সুন্দর

হ্যামক এমনিও ঝুলিয়ে রাখতে পারেনঘরে,বারান্দায় কিংবা ছাদে বা বাইরের বাগানে।হ্যামক ঝোলানোর জন্যে কিছুটা জায়গা চাই।খুব কম জায়গা হলে সিলিং থেকে ঝোলা দোলনা লাগাতে পারেন।বসার ঘর,বারান্দা এমনকি শোওয়ার ঘরেও যদি অনেকটা জায়গা থাকে,একটা জানলার ধারে রাখতে পারেনএমন ঝোলানো দোলনা।

স্ট্যান্ডিং দোলনার চল অন্দরসজ্জায় সব চেয়ে বেশি।অনেকে বসার ঘরে সোফার পরিবর্তে সুন্দর সাজানো দোলনাও ব্যবহার করেন।দেখতে ভালই লাগে।তবে অন্দরসজ্জার সঙ্গে তাল মিলিয়ে এসব দোলনা নির্বাচন করা উচিত।ঘরের আসবাবের সঙ্গে সবসময়ই যেন একটা সামঞ্জস্য থাকে।বসার ঘরে স্ট্যান্ডিং সাজানো দোলনা রাখলে তাকে সিলিং লাইট দিয়ে আলোকিত করা দরকার।কাঠ,ফাইবার,ব্রোঞ্জ,কাস্টিং কিংবা রট আয়রনের বডিতেও স্ট্যান্ডিং দোলনা পাওয়া যায়।

ঘরে যে দোলনাই রাখুন না কেন,দোলনার বিছানা কিংবা বসার গদির ফ্যাব্রিকের দিকে লক্ষ্য রাখা একান্ত জরুরি। সুতির কাপড় ব্যবহার করুন। মাঝে মাঝেই সে সব পরিষ্কার করুন। দোলনার গিঁট টাঙানোর দড়ি এ সবেও খেয়াল রাখতে হবে।(ছবি: শাটারস্টক ও আইস্টক)