পুরনোকে আসবাবে নতুন স্বাদ অ্যান্টিক অন্দরসজ্জা

সুদীপ ভট্টাচার্য

১৮ অক্টোবর, ২০২০, ১০:৪৫
শেষ আপডেট: ১৮ অক্টোবর, ২০২০, ০০:০৮

সেকেলে আসবাবে মোটিফ, বিশেষ ধরনের পেন্টিং কিংবা ফ্রি হ্যান্ড ডিজাইন করে নিলে একেবারে নতুনের মতো হয়ে উঠবে।


অন্দরসজ্জার ক্ষেত্রে যে বিষয়টিতে সবচাইতে বেশি নজর দিতে হয়,তা হল কিছু পুরনো আসবাবের যথাযথ এবং সঠিক ব্যবহার। বাড়ির পুরনো আসবাব ঘিরে অনেকেরই অনেক নস্ট্যালজিয়া থাকে। বিয়ের খাট, বহু পুরনো আলমারি বা এমন অন্য কোনও আসবাব যত্ন করে আগলে রাখতে চান মানুষ। এ দিকে নতুন বা আধুনিক আসবাবের ডিজাইনের সঙ্গে পুরনো ডিজাইনের আসবাব কিছুতেই খাপ খেতে চায় না। তবু সেন্টিমেন্টের কথা মাথায় রেখে তাকে মানিয়ে নিতেই হয়। 

পুরনো আসবাবনতুন করে ন্যাচারাল পালিশ করে ঘরে রাখবেন, এমনটা হতেই পারে। ধরা যাক, একটা পুরনো টি টেবিল আছে, খুব শখের এবং বাতিল করা যাবে না।এমতাবস্থায় টি টেবিলটির কাঠামোটা আপনি পাল্টে ফেলতে পারেন। স্কেলিটন পাল্টে একেবারে আধুনিক ডিজাইনের  ধাঁচে বানিয়ে নেওয়া যায়। চারপাশে প্লাইয়ের আস্তরন দিয়েকয়েকটা ড্রয়ারবানিয়ে সেই পুরনো টি টেবিলটাই একেবারে নতুন ঝকঝকে হয়ে উঠতে পারে। 

পুরনো আসবাবে অ্যান্টিক লুক দিলে ঘরের বাকি আসবাবও মানানসই করে নিতে হবে।

অনেক ক্ষেত্রে পুরনো আসবাবের উপরে আর্টিস্টিক পেন্টও করা যায়। সেকেলে আসবাবে মোটিফ, বিশেষ ধরনের পেন্টিং কিংবা ফ্রি হ্যান্ড ডিজাইন করে নিলে একেবারে নতুনের মতো হয়ে উঠবে। তবে পুরনো আসবাবে অ্যান্টিক লুক দিলে ঘরের বাকি আসবাবও মানানসই করে নিতে হবে। অন্তত সমস্ত ডিজাইনের ক্ষেত্রে সামঞ্জস্য থাকাটা জরুরি। এক্ষেত্রে পুরনো আসবাবে অ্যান্টিক লুক দেওয়ার পরে সেটাকে ব্যালেন্স করতে দেওয়ালে সাবেক পেন্টিং ঝুলিয়ে দেওয়া যায়।

আরও পড়ুন: পুজোর আগেই চটজলদি ঘর গোছান, রইল টিপস

আরও পড়ুন: থাক হোম থিয়েটারের ঘর, বাড়িতেই পান সিনেমা হলের মজা 

পুরনো আসবাবকে নতুন রূপে নিয়ে আসা এমন কিছু কঠিন কাজ নয়। তবে আগেই ঠিক করে নিনসেকেলে আসবাবের চরিত্র আপনি পাল্টাবেন কিনা। সব ক্ষেত্রে পাল্টানোর দরকারও হয় না। স্প্রে পেন্টিং করে কাঠ বা মেটালের আসবাবকে অন্যরকম লুকে নিয়ে যাওয়া সহজ কাজ।