উৎসবের মরসুমে তরতাজা থাকতে রাখুন এই সব এসেনশিয়াল অয়েল

আত্রেয়ী বসু

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১৭:০৬
শেষ আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১৩:১১

আকষর্ণীয় চেহারা পেতে চুল থেকে নখ— শরীরের সব অংশেরই নিয়মিত যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। এর ফলে নেগেটিভ চিন্তা, ক্লান্তি, টেনশন দূর হবে সহজে। কোন কোন তেলে রাখবেন আস্থা? জেনে নিন।


প্রাত্যহিক জীবনের জমতে থাকা ক্লান্তি, অবসাদ, উদ্বেগ প্রায়শই আমাদের কাবু করে ফেলে। ফলে ঘুম কমে যাওয়া থেকে শুরু করে রক্তচাপ বেড়ে যাওয়ার মতো জটিল সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। আর এ বছর কমবেশি আমরা সবাই মনেওশরীরে বিপর্যস্ত। পুজো আসছে। উৎসবের সময় স্ট্রেসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে মনোবিদদের পরামর্শ নেওয়ার পাশাপাশি ভরসা রাখতে পারেন অ্যারোমাথেরাপিতে।

অ্যারোমাথেরাপি চিকিৎসায় ব্যবহার করা হয় উদ্ভিদজাত নির্যাস। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই পদ্ধতি আমাদের স্মেল রিসেপ্টরকে সক্রিয় করে স্নায়ুতন্ত্রের মাধ্যমে মস্তিষ্কে বার্তা পাঠায়। এতে মস্তিষ্কের কিছু বিশেষ অংশ উদ্দীপিত হয়, যা আমাদের আবেগ নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী। যে কোনও ক্যারিয়ার তেলের (নারকেল, আমন্ড, অ্যাভোকাডো, অ্যাপ্রিকট) সঙ্গে কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে লাগিয়ে নিন ঘাড়েবা কব্জিতে। কিংবা দু’ড্রপ ফেলে দিন স্নানের জলে। চাইলে সরাসরি গন্ধও নিতে পারেন। এর ফলে নেগেটিভ চিন্তা, ক্লান্তি, টেনশন দূর হবে সহজে। কোন কোন তেলে রাখবেন আস্থা?

ল্যাভেন্ডার অয়েল: স্ট্রেসমুক্ত হতে একটি অতি পরিচিত এবং উপযোগী এসেনশিয়াল অয়েল হল ল্যাভেন্ডার। শরীর এবং মনের উপর এর সুদিং এফেক্টের কথা বিশেষ ভাবে প্রমাণিত। উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা দূর করতে, নিদ্রাহীনতা নিরাময়ে ল্যাভেন্ডার অয়েলের জুড়ি মেলা ভার। তাই দুরুদুরু বুকে নির্ঘুম রাত আর নয়।

আরও পড়ুন: দু মাসে পাঁচ কেজি ওজন কমাতে চান? মেনে চলুন এই ডায়েট

রোজমেরি অয়েল। ছবি: শাটারস্টক।

রোজমেরি অয়েল: মানসিক তৃপ্তি, সন্তুষ্টি বজায় রাখতে বিশেষ সহায়ক রোজমেরি অয়েল। পুজো দরজায় কড়া নাড়ছে, এদিকে প্রচুর কাজ বাকি? আস্থা রাখুন রোজমেরি অয়েলে। কর্মক্ষমতা বাড়াতে ও মন ভাল রাখতে রীতিমতো প্রভাব রয়েছে এই অয়েলের। 

বার্গামট অয়েল: সুপ্রসিদ্ধ আর্ল গ্রে টি-র বিশেষ সৌরভে যার অবদান রয়েছে সেই বার্গামট অয়েলের উৎস লেবুর খোসা থেকে। তরতাজা সুবাসে মুহূর্তে মনকে ঝরঝরে করে তোলে বার্গামট অয়েল। নিয়ে আসে অফুরান এনার্জি। ব্যাক্টেরিয়া সংক্রমণ কমানো, খারাপ কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখা, ব্যথা উপশম করা, ক্লান্তি, অবসাদ দূরে রাখার ক্ষেত্রে এটি খুবই উপযোগী।

আরও পড়ুন: লেবু জল, গ্রিন টি আর অঞ্জলি, মাতিয়ে দিন পুজো

রোমান ক্যামোমাইল অয়েল: স্নায়ুতন্ত্রের উপর রোমান ক্যামোমাইল অয়েলের প্রভাব খুব আরামপ্রদ। মারাত্মক মানসিক আঘাতপ্রাপ্ত, নির্যাতনের শিকার এমন মানুষদের সারিয়ে তোলার প্রক্রিয়ায় এই অয়েলের ব্যবহার সুবিদিত।

জেসমিন অয়েল। ছবি: শাটারস্টক।

জেসমিন অয়েল: জুঁই ফুলের মৃদু, নরম সৌরভে মুগ্ধ, রোমাঞ্চিত হন না এমন কেউ আছেন কি? জুঁইয়ের আরক থেকে তৈরি এই এসেনশিয়াল অয়েলের সুবাস আমাদের মনে চমৎকার আবহ তৈরি করে। মন থাকে শান্ত, সতেজ। অনাগত উৎসব উদযাপনের মেজাজ তৈরি করে দিতে জেসমিন অয়েল আদর্শ। ডিফিউজারে দিয়ে রাখুন অথবা সরাসরি নিন এর নির্যাস।

আরও পড়ুন: পুজোর সময় ত্বক খসখসে? কী কী মেনে চলতে হবে

ইলাং-ইলাং অয়েল: মনের মধ্যে ভার হয়ে থাকা নেগেটিভ ইমোশন সরিয়ে, হৃদস্পন্দনের গতি কমিয়ে আপনাকে হালকা, চনমনে থাকতে সাহায্য করে ইলাং-ইলাং অয়েল। কয়েক ফোঁটা ইলাং-ইলাং লাগিয়ে নিন ঘাড়ে, কব্জিতে। ব্যস, আমোদিত হন উৎসবের সৌরভে।