পার্লার ছাড়াই জব্দ ব্ল্যাকহেডস, কী কী ঘরোয়া পদ্ধতি মানতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদন

০২ নভেম্বর, ২০২০, ১৩:৪৯
শেষ আপডেট: ০২ নভেম্বর, ২০২০, ১৩:৫৯

ঘরোয়া পদ্ধতিতে প্রতি দিন একটু যত্ন নিলেই কিন্তু ত্বক ব্ল্যাকহেডস-মুক্ত থাকে অনায়াসে।


ত্বকের যত্ন নিতে হবে। কারণ ধুলোবালি থেকে ত্বকের নানা রকম সংক্রমণ হয়। সে ক্ষেত্রে ব্ল্যাকহেডস দূর করার ভাবনাও ভাবতে হবে বইকি! মুখের ত্বককে সুন্দর রাখতে প্রয়োজন নিয়মিত যত্ন নেওয়া। আর সে ক্ষেত্রেই একটি বড় সমস্যা হল ব্ল্যাকহেডস। নাকের খাঁজে, চিবুকে ব্ল্যাকহেডস হতে পারে। ত্বকের মৃত কোষ জমেই এই সমস্যা দেখা দেয়।

পার্লারে ফেসিয়ালের সময়ে ব্ল্যাকহেডস সরান সকলেই। কিন্তু শুধুমাত্র পার্লারে ভরসা করার কারণে সারা মাসের ব্ল্যাকহেডস এক বারে সরাতে গিয়ে ত্বকের উপরে অকারণ চাপ পড়ে। একে করোনা আবহে পার্লার যেতে অনেকেই ভয় পাচ্ছেন। আবার পার্লারে ব্ল্যাকহেডস তুলতে খুব ব্যথাও লাগে। অথচ ঘরোয়া পদ্ধতিতে প্রতি দিন একটু যত্ন নিলেই কিন্তু ত্বক ব্ল্যাকহেডস-মুক্ত থাকে অনায়াসে।

আরও পড়ুন: দোকানে নয়, এই সব ঘরোয়া উপায়ে নিজেই ‘নতুন’ করুন গয়না

উপকরণ

একটি মাঝারি মাপের আলু, এক চামচ অ্যাপেল সিডার ভিনিগার ও জল।

লাগাতে পারেন হলুদ, বেসন ও দইয়ের তৈরি প্যাক 

পদ্ধতি:

আলুগুলোকে টুকরো করে কেটে অ্যাপেল সিডার ভিনিগারে কিছু ক্ষণ ডুবিয়ে রাখুন। ভিনিগার মেশানো সেই আলুগুলিকে মিক্সিতে ব্লেন্ড করে আইস ট্রে-তে রেখে দিন। কিছু ক্ষণ পর এগুলি ঠান্ডা হয়ে বরফের মতো জমাট বেঁধে যাবে। এ বার ভাল করে মুখ ধুয়ে সেই কিউবগুলি নিয়ে ব্ল্যাকহেড আক্রান্ত জায়গায় দিনের মধ্যে বার তিনেক মাসাজ করুন। সপ্তাহ খানেক এ ভাবে যত্ন নিলেই ব্ল্যাকহেডসের সমস্যা কমবে।

আরও পড়ুন: খুসকির সমস্যায় জেরবার? ঘরোয়া এই সব উপায়েই দ্রুত সমাধান

আর কী কী করা যেতে পারে?

  • হলুদ, বেসন ও দইয়ের প্যাক তৈরি করে ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এতে পোর্স হয় না। ত্বক উজ্জ্বল থাকে। ব্ল্যাকহেডসের সমস্যাও কমে।
  • কাজুবাদাম গুঁড়ো করে জলের সঙ্গে মিশিয়ে মুখে মাস্কের মতো লাগিয়ে রাখুন।
  • পাঁচ মিনিট ধরে মুখে বরফকুচি ঘষুন। ত্বকে রক্ত সঞ্চালন হবে। সমস্যা কমবে।