পুরনো টিভি এ বার স্মার্ট, লাগবে শুধু একটা স্টিক!

অলোক ভট্টাচার্য

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১৭:৩০
শেষ আপডেট: ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১৮:৩৫

আপনার সাধারণ টিভিকে স্মার্ট বানাতে নানা সংস্থা টিভি স্টিক নিয়ে এসেছে। যেমন, অ্যামাজ়ন-এর ‘ফায়ার টিভি স্টিক’।


নিজে স্মার্ট হলেই তো হবে না। আশপাশের সব কিছুকে স্মার্ট করে তুলতে হবে, আধুনিক প্রজন্ম এমনটাই চায়। ফোন থেকে ওয়াটার ফিল্টার—সব কিছুই যখন স্মার্ট হয়ে উঠেছে তখন বাড়িতে পড়ে থাকা টিভিটি বাদ যায় কেন? ভাবছেন, এ আবার বলার কথা হল। বাজার এখন স্মার্ট টিভিতে ভরে গিয়েছে। তেমন একটি কিনে নিয়ে এলেই হল। কিন্তু অনেকের আবার পুরনো টিভিটির উপর মায়া পড়ে গিয়েছে। কত স্মৃতি সেটি নিয়ে। এ ছাড়াও নতুন টিভি কিনব বললেই কেনা যাবে না। অর্থনীতি যেখানে ধুঁকছে, জীবিকা যেখানে অনিশ্চিত, সেখানে চাইলেই টিভি কেনা সম্ভব নয়। তা হলে উপায়?

প্রযুক্তি যখন আছে, উপায় তখন রয়েছে। এ ক্ষেত্রে আপনি ব্যবহার করতে পারেন টিভি স্টিক। আপনার সাধারণ টিভিকে স্মার্ট বানাতে নানা সংস্থা টিভি স্টিক নিয়ে এসেছে। যেমন, অ্যামাজ়ন-এর ‘ফায়ার টিভি স্টিক’। একটি বড়সড় পেন-ড্রাইভের মতো দেখতে জিনিস। সঙ্গে আসবে একটি রিমোট। রিমোটটি ‘অ্যালেক্স ভয়েস রিমোট’। এতে ভয়েস সার্চ করা সম্ভব। রিমোটে পাওয়ার, ভলিউম ও মিউট বটন রয়েছে। আপনার টিভিতে এইচডিএমআই পোর্ট থাকলে সেখানে পেন-ড্রাইভের মতো দেখতে টিভি স্টিকটি গুঁজে দিলেই হবে। তবে এই পোর্ট না থাকলে কনভার্টারের সাহায্যেও জুড়ে দেওয়া সম্ভব। তবে আপনার টিভিকে ‘টিভি স্টিক’ চালানোর উপযুক্ত হতে হবে। এখন ফায়ার টিভি স্টিক দিয়ে ফোর-কে ভিডিয়ো স্ট্রিম করা যায়।

এ বার আপনার বাড়িতে ইন্টারনেট থাকলে তার সঙ্গে টিভির সংযোগ হয়ে গেল। এখানে প্রি-লোড করা আছে ‘নেটফ্লিক্স’, ‘অ্যামাজ়ন প্রাইম’, ‘হট স্টার’-এর মতো বেশ কিছু ‘ওটিটি’। পছন্দের ‘ওটিটি’ সাবস্ক্রাইব করে নিন। স্মার্ট টিভির সুবিধা আপনার হাতের মুঠোয় এ বার।

আরও পড়ুন: মোবাইলের স্ক্রিনে আঙুল ছোঁয়ান, যন্ত্র করবে ঘর ঝাড়পোঁছ

টিভি স্টিকের বাজারে নতুন সংযোজন ‘এমআই টিভি স্টিক’।

আর একটি সুবিধা হল, এখানে অনেক অ্যাপ আলাদা ভাবে সাইডলোড করা যায়। স্টিকে থাকা মাইক্রো ইউএসবি পোর্টটিকেও নানা কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। এখানে ‘ভিপিএন’ করাও সম্ভব। একটি অসুবিধা হল, এখানে মোবাইল বা ট্যাব থেকে কোনও ভিডিয়ো চালিয়ে দেখতে পারবেন না।

এ ছাড়াও আছে ‘গুগল ক্রোমকাস্ট’। গোলাকার বা পেন ড্রাইভের মতো— দু’ধরনের দেখতে একটি বস্তু। এটিও আপনার টিভির সঙ্গে ইউএসবি-এর মাধ্যমে যুক্ত হয়ে যায়। তবে এর সঙ্গে কোনও রিমোট থাকবে না। এর প্রধান কাজ আপনার স্মার্টফোনের ভিডিয়োকে টিভিতে কাস্ট করা। ফলে, স্মার্টফোনে ‘ওটিটি’ অ্যাপগুলি থাকতে তা আপনার টিভিতেও দেখা যায়। তবে ‘গুগল ক্রোমকাস্ট’-এ আলাদা কোনও সফটওয়্যার দেওয়া নেই। ফলে এখানে আলাদা ভাবে কোনও অ্যাপ সাইডলোড করতে পারবেন না। আর এখানে এইচডি ভিডিয়ো দেখা যাবে। ফোর-কে ভিডিয়ো দেখতে গেলে উন্নততর ভার্সন কিনতে হবে।

আরও পড়ুন: ইন্টারনেটের ফাইভ-জি খুলে দেবে নতুন দুনিয়া

এই টিভি স্টিকের বাজারে নতুন সংযোজন ‘এমআই টিভি স্টিক’। এটি সরাসরি অ্যামাজ়নের ‘ফায়ার টিভি স্টিক’-এর প্রতিযোগী। অনেকটা একই রকম দেখতে। এর সঙ্গেও রিমোট রয়েছে। সঙ্গে রয়েছে একটি মাইক্রো ইউএসবি পোর্টও। এই রিমোটে ‘গুগল ভয়েস সার্চ’-এর সুবিধা আছে। সঙ্গে রয়েছে নেটফ্লিক্স ও অ্যামাজ়ন প্রাইমের মতো অনেক অ্যাপ। আপনি প্রয়োজন মতো অ্যাপ ডাউনলোডও করতে পারবেন। কারণ, এখানে গুগল প্লে স্টোরও পাওয়া যায়। তবে এখানে আপনি ফোর-কে ভিডিয়ো স্ট্রিম করতে পারবেন না। তবে শুধু ফুল এইচডি ভিডিয়ো এখানে দেখা যাবে। পাশাপাশি, রিমোটে কোনও মিউট বাটনও নেই। এক কথায় বলা যায়, এটি টিভিতে লাগালে টিভিটি অ্যান্ড্রয়েড টিভির মতো হয়ে যাবে। একটি জায়গায় এই স্টিক, ফায়ার স্টিকের থেকে এগিয়ে রয়েছে। তা হল এখানে ভিডিয়ো সম্প্রচার করা যায়। আপনার মোবাইল বা ট্যাব থেকে আপনার টিভিতে চালিয়ে দেখতে পারেন এ বার। আপনার টেলিভিশন সেটটিও এ বার থেকে যে স্মার্ট হয়ে উঠল!